• শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রূপগঞ্জে ফের বেপরোয়া 'গিয়ার' গ্রুপ

  সাইদুর রহমান, ষ্টাফ রিপোর্টার, রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ):

১১ জানুয়ারি ২০২৪, ১৬:৪০
গিয়ার গ্রুপ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ফের বেপরোয়া হয়ে উঠেছে গিয়ার গ্রুপ। এ গ্রুপের সদস্যদের নামে রয়েছে হত্যা, ধর্ষণ, ডাকাতি, ছিনতাই, চাঁদাবাজিসহ একাধিক মামলা।

গত মঙ্গলবার (০৯ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার গোলাকান্দাইল ইউনিয়নে দাবিকৃত চাঁদার টাকা না পেয়ে ব্যবসায়ীকেসহ তার পরিবারের দুই সদস্যকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

সরেজমিনে ঘুরে জানা যায়, গিয়ার গ্রুপ নামের একটি গ্রুপ যে গ্রুপের প্রধান হিসেবে রয়েছে মাসুম বিল্লাহ নামের এক সন্ত্রাসী। দিন শেষে রাত হলে তাদের গ্রুপের সদস্যরা গার্মেন্টস শ্রমিকদের মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়া, বেতনের টাকা ছিনিয়ে নেওয়াসহ না ধরনের অপকর্ম। এমনকি নারী শ্রমিকদের তুলে নিয়ে গিয়ে চালানো হয় গণধর্ষণ। এ গ্রুপের প্রধান মাসুম বিল্লাহর নামে রয়েছে মুড়াপাড়া এলাকার সোলমান, গোলাকান্দাইল বিজয়নগর এলাকার স্কুল শিক্ষার্থী সানি ও ভুলতা সাওঘাট এলাকার তেল ব্যবসায়ী মনু হত্যা মামলা, তাছাড়া রয়েছে একটি ধর্ষণ, দুইটি রোড ডাকাতিসহ রয়েছে ৩০টি মামলা। গ্রুপের সদস্যরাও কম নয় তাদের প্রত্যেকের নামের রয়েছে রূপগঞ্জ থানায় রয়েছে একাধিক মামলা। পান থেকে চুন কসলেই দেশি-বিদেশি অস্ত্রসহ প্রকাশ্যে দিবালোকে চলে হামলার ঘটনা। এ গ্রুপের প্রধান মাসুম বিল্লাহ ছাড়াও রয়েছে ইমন ওরফে ভাগিনা ইমন, ভাতিজা নয়ন, শিফাউল, নাঈম, ইসমাইল, রকিব, শান্ত, মনির, ফয়সাল, মিমসহ ৭০ থেকে ৮০ জনের একটি দল। গেল বছর চাঁদা চায় না দেওয়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধা চান মিয়ার স্ত্রী রাশিদা বেগমের ছেলে রবিউল ইসলামকে প্রকাশ্যে দিবালোকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে এমন একটি ভিডিয়ো দেখা যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বীর মুক্তিযোদ্ধা চান মিয়ার স্ত্রী রাশিদা বেগম বলেন, মাসুম বিল্লাহ আমি গত বছর নতুন বাড়ি নির্মাণের কাজ শুরু করলে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। দাবিকৃত টাকা না পেয়ে মাসুম বিল্লাহ ও তার লোকজন আমার ছেলে রবিউলকে বাসা থেকে ধরে নিয়ে যায়। এ সময় বাঁধা দিতে গেলে তারা আমাকেও পিটায়। পরে আমার বসতঘরে হামলা ভাংচুর চালায়। এরপর দেখা যায় আমার ছেলেকে পেটাচ্ছে এমন ভিডিয়ো। এখনো ছেলে সন্তানদের নিয়ে আতঙ্কে দিন পার করি। এদের বিষয়ে বলে লাভ কি উল্টো হামলার শিকার হওয়ার আতঙ্কে থাকতে হয়।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে কয়েকজন ভুক্তভোগী জানান, মাসুম বিল্লাহ গ্রুপের প্রতিটা সদস্যের কাছে রয়েছে সুইস গিয়ার নামক অস্ত্র। তাই ওই গ্রুপের সদস্যরাই গ্রুপের নাম দিয়েছেন গিয়ার গ্রুপ। এ গ্রুপের সদস্যরা কয়েকবার গ্রেপ্তার হলেও জামিনে এসে ফের শুরু করে অপকর্ম। আমরা এদের হাত থেকে মুক্তি পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি দীপক সাহা বলেন, যেহেতু আমি নতুন এখনো পুরোপুরি কাজ শুরু করতে পারিনি। তবে আমি থাকলে রূপগঞ্জে কোন গ্রুপ থাকবেনা। তদন্ত মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড