• শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চুরি করতে দেখে ফেলায় প্রহরীকে হত্যা, ৫ দিন পর মাটি খুড়ে মরদেহ উদ্ধার

  সোহেল রানা, সিরাজগঞ্জ:

১০ জানুয়ারি ২০২৪, ১৭:২৬
হত্যা

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে চুরি করতে দেখা ফেলায় ফেরদৌস আলী (১৮) নামে একটি মিলের নিরাপত্তা প্রহরীকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার পর ফেরদৌসের মরদেহ ওই মিলের ভিতরে মাটিতে পুতে রাখা হয়েছিল। ঘটনার ৫ দিন পর তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে চোরকে আটকের পর তার দেয়া তথ্যমতে পুলিশ বুধবার সকালে ওই মিলের ভিতর থেকে মাটি খুড়ে ফেরদৌসের মরদেহ উদ্ধার করেছে।

হত্যাকান্ডের শিকার ফেরদৌস আলী শাহজাদপুর থানার মশিপুর গ্রামের আক্কাছ আলীর ছেলে। আটক চোর একই থানার ঘোরশাল গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে মো. মামুন (৩০)।

শাহজাদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খায়রুল বাশার জানান, ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের পাশে মশিপুরে আর.কে টেক্সাটাই মিলসে নিরাপত্তা প্রহীর চাকুরী করত। গত ৫ জানুয়ারী সন্ধ্যায় ফেরদৌস আলী ডিউটির জন্য মিলে আসেন। পরদিন সকালে বাড়ীতে ফিরে না গেলে স্বজনরা মিলে এসে তাকে পায় না। এ ঘটনায় স্বজনরা থানায় সাধারন ডায়েরী করেন। পরবর্তীতে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে মামুন আলীকে আটক করে। পরে তার দেয়া তথ্যমতে সকালে ওই মিলের ভিতরে মাটিতে পুতে রাখা অবস্থায় ফেরদৌসের মরদেহ উদ্ধার করে। মরদেহ উদ্ধারের পর মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, আটক মামুন ওই মিলে চুরি করতে আসে। এ সময় নিরাপত্তা প্রহরী ফেরদৌস দেখে ফেলায় তার সাথে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে ফেরদৌসের মাথায় আঘাত করলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তখন মৃত নিশ্চিত করতে তার মুখে কম্বল ঠেসে ধরে। এরপর ফেরদৌসের লাশ মাটিতে পুতে রেখে মোবাইল নিয়ে চোর মামুন চলে যায়। তিনি আরো জানান, হত্যা ব্যবহৃত কম্বল ও ভিকটিমের মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড