• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ১৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অপপ্রচারের বিরুদ্ধে দৌলতপুর যুবলীগের সংবাদ সম্মেলন

  আতিয়ার রহমান, দৌলতপুর (কুষ্টিয়া):

৩১ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮:০৫
সংবাদ সম্মেলন

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক এমপি আলহাজ্ব রেজাউল হক চৌধুরী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিমূলক অপপ্রচারের বিরুদ্ধে দৌলতপুর উপজেলা যুবলীগ সংবাদ সম্মেলন করেছে।

রোববার দুপুর সোয়া ১টায় দৌলতপুর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদেরের কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দৌলতপুর উপজেলা যুবলীগ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন দৌলতপুর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের।

আব্দুল কাদের লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, দৌলতপুরের আওয়ামী রাজনীতিতে চৌধুরী পরিবারের অবদান অনস্বীকার্য। দৌলতপুরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে সুসংগঠিত করতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব রেজাউল হক চৌধুরীর যেমন উল্লেখযোগ্য অবদান রয়েছে, ঠিক তেমনি অবদান রয়েছে তার ছোটভাই দৌলতপুর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বুলবুল আহমেদ টোকেন চৌধুরীর। তিনি একজন পরিচ্ছন্ন ও জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ। সেইসাথে দৌলতপুরের আওয়ামী আদর্শের সাধারণ নেতা কর্মীদের আশ্রয়স্থল। বিগত দিনে আলহাজ্ব রেজাউল হক চৌধুরী এমপি থাকা অবস্থায় দৌলতপুরের ১৪ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ দলীয় চেয়ারম্যান ও উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে সার্বিক সহায়তা করেছিলেন। আওয়ামী লীগের দুর্দিনেও তিনি যেভাবে কাজ করে গেছেন, বর্তমানেও তিনি দৌলতপুর আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করতে নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

লিখিত বক্তব্যে আরও উল্লেখ করা হয়, রেজাউল হক চৌধুরীর আরেক ভাই সেলিম চৌধুরী হোগলবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক। তিনি আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীক নিয়ে পরপর দুইবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন এবং তিনি নিজ দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করায় স্বর্ণপদক ও শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। দৌলতপুরের তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের আহ্বানে আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব রেজাউল হক চৌধুরী। নির্বাচনের মাঠে তার ব্যাপক জনপ্রিয়তায় ঈর্শ্বান্বিত হয়ে একটি কুচক্রী মহল চৌধুরী পরিবারকে হেয় প্রতিপন্ন করার লক্ষ্যে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। যার অংশ হিসেবে কিছুদিন ধরে তারা কয়েকটি গণমাধ্যমকে প্রভাবিত করে প্রতিদ্বন্দ্বী অপর স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের অস্ত্র দেখিয়ে হুমকি ও টাকা দিয়ে ভোটারদের কাছে ভোট চাওয়া হচ্ছে এমন মিথ্যা তথ্য দিয়ে চৌধুরী পরিবারের নামে মিথ্যাচার করা হচ্ছে যা সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট। এমন কাল্পনিক মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে দৌলতপুর উপজেলা যুবলীগের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলল করে মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়।

লিখিত বক্তব্যে আব্দুল কাদের আরও উল্লেখ করেন, আপনারা রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ এবং জাতির বিবেক। চৌধুরী পরিবার নিয়ে যে মিথ্যাচার চালানো হচ্ছে তা সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ তদন্ত ও অনুসন্ধান করে প্রকৃত ঘটনাটি জাতির সামনে তুলে ধরার আহ্বান জানান। টাকা দিয়ে ভোট কেনা হচ্ছে প্রকাশিত এমন সংবাদের বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে দৌলতপুর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের বলেন, এমন কোন ঘটনা ঘটেনি। সাংসদ প্রার্থী রেজাঊল হক চৌধুরীর বাড়িতে থাকা এক ব্যক্তিকে উপজেলা বাজারে সবজি কেনার জন্য টাকা দেওয়ার সময় কে বা কারা ছবি তুলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। যা মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অপপ্রচার এবং প্রকাশিত সংবাদের সাথে কোন যোগসূত্র নেই।

প্রতিদ্বন্দ্বী অপর স্বতন্ত্র প্রার্থীর লোকজনকে অস্ত্র দেখিয়ে ভয়ভীতির বিষয়ে জানতে চাইলে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত দৌলতপুর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বুলবুল আহমেদ টোকেন চৌধুরী বলেন, এমন ঘটনা সঠিক নয়। তারাগুনিয়া থানামোড়ে আমাদের নির্বাচনী প্রচারে তারা বাঁধা দেওয়ার চেষ্টা করা হলে আমি সেখানে উপস্থিত হয়ে তা নিরসন করি। এখানে অস্ত্র দেখিয়ে ভয়ভীতি দেখানোর কোন ঘটনা ঘটেনি।

সংবাদ সম্মেলনে রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজ মন্ডল সহ দৌলতপুর যুবলীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড