• শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আগুনে পুড়ল ৫ দোকানসহ ১২ অটোরিকশা চালকের বেঁচে থাকার স্বপ্ন

  শিব্বির আহমদ রানা, বাঁশখালী (চট্টগ্রাম)

০৬ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৫:২১
অগ্নিকান্ড

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার শীলকূপের জালিয়াখালী নতুন বাজারে মধ্যরাতের ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৫টি দোকানের সম্পূর্ণ মালামাল ও গ্যারেজে থাকা ১২টি অটোরিকশা-টমটম পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এ ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমান প্রায় ৬০ লক্ষাধিক টাকা বলে জানান ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিক ও অটোরিকশা মালিকরা।

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) রাত আনুমানিক দু'টার দিকে জালিয়াখালী বাজারের উত্তর পাশে গোদার পাড় সংলগ্ন জলকদরের বাঁধের পশ্চিম পাশে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে বাঁশখালী ফায়ার সার্ভিস টিম ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও ততক্ষণে সর্বস্ব পুড়ে শেষ হয়ে যায়।

এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিকরা হলেন- অটো-রিকশা গ্যারেজের মালিক মো. সিকান্দার, মুদির দোকানদার মো. হাশেম সাওদাগর, বিস্কুটের (গোডাউন) ডিলার মো. হেলাল, চাউলের দোকানদার মো. শফি আলম, ধান ও ভূসির দোকানদার মো. মোস্তাফা আলী।

ক্ষতিগ্রস্থ অপর অটোরিকশা-টমটমের মালিকরা হলেন- আবুল কাশেম (অটোরিকশা), মো. ইসমাইল (টমটম), জিয়াউর রহমান (অটোরিকশা), মো. ছাবের (অটোরিকশা), রবিউল আলম (অটোরিকশা), আব্দুল হাকিম (অটোরিকশা), শাহ আলম (অটোরিকশা), মনির আহমদ (টমটম), মো. তরিকুল ইসলাম (অটোরিকশা), মো. ফখর উদ্দিন (অটোরিকশা), মো. নুরুল গণি (টমটম), মো. হেলাল (টমটম)।

মো. সিকান্দারের অটোরিকশা গ্যারেজের দোকান থেকে বিদ্যুতের শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারনা করছে স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ও ফায়ার সার্ভিস স্টেশন।

মধ্যরাতে অগ্নিকান্ডের ফলে কোন কিছুই রক্ষা করার সুযোগ হয়নি তাদের। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়েই দোকান মালিক ও অটোরিকশা চালক ছুটে আসেন ঘটনাস্থলে। এসে দেখেন চোখের সামনেই পুড়েছে অসহায় পরিবারগুলোর বেঁচে থাকার স্বপ্ন। হাউমাউ করে কাঁদছে অটোরিকশা চালক মো. আবুল কাশেম। ঋণ করে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা নিয়ে তিনি অটোরিকশাটি ক্রয় করেন। মাত্র একটি কিস্তি পরিশোধ করেছেন তিনি। ছয় সদস্যের পরিবারের ভাগ্যের চাকা নিমিষেই পুড়ে গেল তার। ঋণ করে মো. ইসমাইল সবেমাত্র ১ লক্ষ ৭২ হাজার টাকায় কিনেছে নতুন একটি টমটম। বেঁচে থাকার অবলম্বনটি আয়ের পথ দেখার আগেই পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

মনকিচর জালীয়াখালী নতুন বাজার ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সভাপতি মো. আবু তালেব বলেন- ' যাদের দোকান পুড়ছে এখানের সবাই অসহায়। ঋণের টাকায় অটোরিকশা-টমটম কিনে যারা সংসার চলাতো তাদের স্বপ্ন পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এদের ঘুড়ে দাড়ানোর মতো সামর্থ্য নেই। স্থানীয় প্রশাসন ও বিত্তবানদের সহযোগীতা কামনা করেন তিনি।

বাঁশখালী ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের টিম লিডার নুরুল বাশার বলেন- 'অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে আমরা দ্রুতই ঘটনাস্থলে পৌছি। আমাদের দু'টি পৃথক ইউনিট কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। এ ঘটনায় কিছুই রক্ষা করা সম্ভব হয়নি। ক্ষতিগ্রস্থদের তথ্যমতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ৬০ লক্ষাধিক টাকা।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড