• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ১৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মালয়েশিয়া যাত্রাকালে শিশুসহ ৫৮ জন রোহিঙ্গা উদ্ধার, ৪ দালাল আটক

  মিজানুর রহমান মিজান, টেকনাফ (কক্সবাজার)

২৫ নভেম্বর ২০২৩, ১৫:১৮
রোহিঙ্গা

টেকনাফ থেকে সাগরপথ দিয়ে মালয়েশিয়া যাওয়ার চেষ্টা কালে নারী-পুরুষ শিশু'সহ ৫৮ জন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় চার দালালকে আটক করা হয়েছে। তারা হলেন টেকনাফ সদরের ইউনিয়নের মহেশখালীয়া পাড়া এলাকার আমজাদ হোসেনের ছেলে ইয়াছিন ও দরগার ছড়া এলাকর জলু সওদাগরের ছেলে জোবাইর।

শুক্রবার রাত ১০ টার দিকে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের দরগার ছড়ার মেরিন ড্রাইভের সমুদ্র সৈকত এলাকা থেকে তাদেরকে উদ্ধার করা হয়। এদের মধ্য বেশির ভাগই নারী ও শিশু। তার সবাই উখিয়া-টেকনাফের বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা।

শনিবার সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেন টেকনাফ মডেল থানার (ওসি) মুহাম্মদ ওসমান গনি জানান, সাগরপথে মালয়েশিয়া যাত্রাকালে দুই দলাল'সহ ৬০ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়েছে। যাদের ১১ জন পুরুষ, ১৬ নারী ৩৩ জন শিশু রয়েছে। আটক দালালের বিরুদ্ধে মানব পাচারসহ থানায় একাধিক মামলাও রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মূলত দালালচক্রের মাধ্যমে সমুদ্র পাড়ি দিয়ে মালয়েশিয়া যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল তাদের। মানব পাচারকারীদের ধরতে আমাদের অভিযান এখনো চলমান রয়েছে।

এ বিষয়ে শনিবার ২৫ নভেম্বর বেলা ১২ টার দিকে টেকনাফ মডেল থানার কনফারেন্স রুমে সাংবাদিকদের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উখিয়া টেকনাফ সার্কেল রাসেল জানান, মানবপাচার চক্রের সকল দালালদের আটক করতে আমরা বিভিন্ন ঘাটে পুলিশি তৎপরতা বৃদ্ধি করেছি এবং গেল রাতে অভিযান চালিয়ে টেকনাফ সদরের দরগার ছড়া এলাকা থেকে মানবপাচারের শীর্ষ চার দালালসহ মোট ৫৮ জন রোহিঙ্গা নারী পুরুষ ও শিশু আটক করতে সক্ষম হয়েছে এবং তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়েরের পর কারাগারে প্রেরণ করা হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড