• সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

থানচিতে শতবর্ষী মা গাছ কাটল দুর্বৃত্তরা

  মোহাম্মদ আবদুর রহিম, স্টাফ রিপোর্টার (বান্দরবান)

১৯ জুন ২০২৩, ১৬:৩৬
থানচিতে শতবর্ষী মা গাছ কাটল দুর্বৃত্তরা
শতবর্ষী মা গাছ কেটে ফেলা হচ্ছে (ফাইল ছবি)

বান্দরবানের প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষার্থে মাদার ট্রি কর্তনে বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও কিছু প্রভাবশালী মহলের বিরুদ্ধে বন বিভাগের নাকের ডগায় শতবর্ষী মা গাছ কর্তন করার অভিযোগ উঠেছে।

এ গাছটি না কাটার জন্য স্থানীয় পাড়া বাসীরা বারবার বারণ করা সত্ত্বেও স্থানীয় বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে জন সম্মুখে প্রকাশ্য গাছটি মেশিনারি করাত দিয়ে শত বছরের পুরনো মা গাছটি কেটে ফেলা হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বান্দরবানের থানচি উপজেলার ৩ নম্বর থানচি সদর ইউনিয়নের আমতলী পাড়ায় এলাকায় ৩৬২ নম্বর থানচি মৌজার হেডম্যানের অনুমতিতে নির্মাণাধীন থানচি শেখ রাসেল স্টেডিয়ামের গ্যালারির ছাদ ঢালাই কাজে সেন্টারিং হিসেবে ব্যবহারের অজুহাতে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল বন বিভাগের স্টাফদের অর্থের বিনিময়ে ম্যানেজ করে শতবর্ষী মা গাছটি ইতিমধ্যেই কর্তন করে ফেলেছে।

থানচি সদরের স্থানীয় বাসিন্দা মংহ্লা প্রু মারমা জানান, এই গাছটির বয়স শত বছরের উপরে হবে। স্থানীয় পাহাড়বাসীরা গাছটি না কাটার জন্য বারণ করা সত্ত্বেও নানা অজুহাতে গাছটি কেটে ফেলা হয়েছে। নতুন গাছ লাগালেও এ ধরনের বয়স হতে আরও ১০০ বছর লাগবে। এই গাছগুলো কেটে ফেলার কারণে থানচি উপজেলায় ইতিমধ্যে পানি সংকট দেখা দিয়েছে। আগামী প্রজন্ম কঠিন সংকটে পড়বে।

থানচি সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অংপ্রু ম্রো বলেন, এ ধরনের বড় গাছগুলো কাটার কারণে জলবায়ু ও পরিবেশের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। বন বিভাগ থাকতে এ ধরনের গাছগুলো কিভাবে কাটে আমার বোধগম্য নয়। এ ধরনের গাছ কাটার পর জানাজানি হলে বন বিভাগ গাছ গুলি ধরলেও পরবর্তী ছেড়ে দেয়।

এ বিষয়ে বন বিভাগের থানচি সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান টগর বলেন, মাদার ট্রি কাটার জন্য আমাদের কাছ থেকে কোন অনুমতি নেওয়া হয়নি। গাছটি নির্মাণাধীন থানচি স্টেডিয়ামের সেন্টারিংয়ের জন্য নাকি কাটা হয়েছে।

যদিও সংবাদ কর্মীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে গাছগুলো আটক করা হয়েছে। বিষয়টি থানচি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয়কে জানিয়েছি। ইউএনও সাহেব ব্যবস্থা নেবেন বলে তিনি জানান।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড