• সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পরিমাণে কম হলেও হালদায় মিলছে ‘নমুনা ডিম’ 

  আবিদ মাহমুদ, রাউজান (চট্টগ্রাম)

২০ মে ২০২৩, ১৪:১৮
পরিমাণে কম হলেও হালদায় মিলছে ‘নমুনা ডিম’ 

প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে নমুনা ডিম ছেড়েছে মা মাছ। তবে লবণাক্ততার কারণে মাছের আনাগোনা কম থাকায় নমুনা ডিমের দেখা মেলেনি মদুনাঘাট থেকে আজিমের ঘাট পর্যন্ত।

আজিমের ঘাটের পর থেকে সর্তার ঘাটের দক্ষিণাংশে কয়েকটি পয়েন্টে নমুনা ডিম পাওয়া যাচ্ছে; তবে পরিমাণে খুবই কম। গত বুধবার রাতে এবং গত বৃহস্পতিবার সকালে কয়েকজন ডিম সংগ্রহকারী ২ থেকে ৩ গ্রাম ডিম সংগ্রহ করেন। প্রতিটি পয়েন্টে নমুনা ডিম না পাওয়ায় হতাশ হালদা নদীর রাউজান ও হাটহাজারী অংশের শত শত ডিম সংগ্রহকারী।

ধারণা করা হচ্ছে, ঘূর্ণিঝড় মোখার প্রভাবে মিঠাপানির হালদায় লবণাক্ততা বাড়ায় ডিম ছাড়েনি মা মাছ। আবার পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত না হওয়াকেও বড় কারণ হিসেবে দেখছেন কেউ কেউ। ডিম সংগ্রহকারীদের জালে যা মিলছে, সেগুলোকে নমুনা ডিম বলতে রাজি নন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা। মৎস্য কর্মকর্তাদের মতে, জালে আটকানো ডিম নমুনা ডিম নয়, মা মাছের পেট থেকে খসে পড়া ডিম।

অন্য দিকে আজিমের ঘাট এলাকা থেকে মদুনাঘাট পর্যন্ত ডিম না ছাড়ার কারণ হিসেবে লবণাক্ততাকে দায়ী করা হলেও মৎস্য বিভাগের দাবি বৃষ্টি হওয়ায় লবণাক্ততা কেটে গেছে। ডিম সংগ্রহকারী কামাল সওদাগর বলেন, ঘূর্ণিঝড় মোখার সময়ও আমরা নদীতে নামার প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। কেউ কেউ নেমে অপেক্ষা করেছিলেন।

এছাড়া গত তিন দিন ধরে নদীতে অবস্থান করে কাক্সিক্ষত ডিম পাওয়া যায়নি। বজ্রসহ পর্যাপ্ত বৃষ্টি না হওয়ায় মাছ ডিম ছাড়ছে না। অংকুরিঘোনা এলাকার ডিম সংগ্রহকারী সঞ্জিত বড়ুয়া বলেন, বৃষ্টি শুরু হওয়ার পর আমরা নৌকা ও ডিম ধরার সরঞ্জাম নিয়ে নদীতে জাল ফেলি। আমাদের জালে নমুনা ডিম উঠেছে। আশা করছি পূর্ণাঙ্গ ডিম ছাড়বে।

আজিমের ঘাটের ডিম সংগ্রহকারী মো. আজিজ বলেন, জাল ফেলেছি, কিন্তু নমুনা ডিম পাইনি। কারণ নদীতে এখনো লবণাক্ততা আছে। আজিমের ঘাটের পর থেকে সর্তারঘাট পর্যন্ত লবণাক্ততা কম থাকায় সেদিকে নমুনা ডিম ছেড়েছে।

হালদা গবেষক ড. মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া প্রজনন মৌসুমের তিনটি জো (ডিম ছাড়ার সময়) অতিক্রম হলেও হালদায় কার্পজাতীয় মাছের কাক্সিক্ষত ডিমের দেখা মেলেনি। কিন্তু মঙ্গলবার থেকে চতুর্থ জো শুরু হওয়ার পর কিছু কিছু জায়গায় সামান্য পরিমাণে নমুনা ডিম মিলেছে। ভারী বৃষ্টিপাত কিংবা পাহাড়ি ঢল নামলে আজ-কালকের মধ্যে ডিম ছাড়বে কার্পজাতীয় মা মাছ। মাছোয়াঘোনা, রমদাশ মুন্সির ঘাটে নমুনা ডিম পাওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি।

হালদা বিশেষজ্ঞ ড. মঞ্জুরুল কিবরিয়া বলেন, হালদার অংকুরি ঘোনা এবং সিপাহী ঘাটে ডিম আহরণকারীদের জালে নমুনা ডিম উঠেছে।

রাউজান উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা পীযুষ প্রভাকর বলেন, হালদায় মা মাছ এখনো নমুনা ডিম ছাড়েনি।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড