• বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১  |   ৩৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পদ্মা নদীর দূষণ-দখল মুক্তে সোচ্চার জনতা

  রাফিকুর রহমান লালু, রাজশাহী

১৪ মে ২০২৩, ১১:৩০
পদ্মা নদীর দূষণ-দখল মুক্তে সোচ্চার জনতা
মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হচ্ছে (ছবি : অধিকার)

রাজশাহীতে দূষণ ও দখলমুক্ত করে পদ্মা নদীকে বাঁচানোর দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল ১০টা থেকে ঘণ্টাব্যাপী রাজশাহীর সাহেব বাজার জিরো পয়েন্টে সামাজিক সংগঠন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ এই কর্মসূচি পালন করে।

পদ্মা নদী বাঁচলে রাজশাহী বাঁচবে, যদি নদী হয় শেষ, তবে মরুভূমি হবে বাংলাদেশ এই স্লোগানে অনুষ্ঠিত কর্মসূচি থেকে অবিলম্বে রাজশাহীর পদ্মা নদী রক্ষার জোর দাবি জানানো হয়। বক্তারা বলেন, রাজশাহীতে গত কয়েক বছরের ব্যবধানে পদ্মা নদীতে ১৭ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে অবৈধ ভাবে বাঁধ দিয়ে নদীর প্রবাহ ধ্বংস করা হয়েছে।

নদী দখল করে অসংখ্য অবৈধ স্থাপনাও গড়ে উঠেছে। এই কারণে পদ্মা নদী তার নিজস্ব অস্তিত্ব হারিয়েছে। পদ্মা নদীর অস্তিত্ব সংকটের কারণে এখন মরে গেছে এই অঞ্চলের অসংখ্য খাল-বিল, পুকুর-জলাশয়। এসব খাল-বিল দখল করে প্রভাবশালীরা রাতারাতি স্থাপনা তৈরি করে ক্রমের নদী এবং খালবিলের অস্তিত্ব ধ্বংস করছে।

অবিলম্বে নদী রক্ষা সহ এই অঞ্চলের খাল-বিল জলাশয় রক্ষা করতে হবে বলে হুশিয়ারি দেয় বক্তারা। একই সাথে ভূ-উপরিস্থ পানির ব্যবহার নিশ্চিতে অবিলম্বে প্রস্তাবিত উত্তর রাজশাহী সেচ প্রকল্প বাস্তবায়নেরও দাবি জানানো হয়।

বক্তারা আরও বলেন, রাজশাহীসহ আশেপাশের এলাকার বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি স্থাপনা, জনসাধারণের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি এবং জানমাল সুরক্ষায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। তবে অত্যন্ত দুঃখ জনক হলেও সত্য যে, এই বাঁধের উভয় পাশে জবর দখল এবং অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের মহোৎসব চলছে।

রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি লিয়াকত আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত, এই মানববন্ধন কর্মসূচিতে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক এবং পেশাজীবী সংগঠনের প্রতিনিধিরা বক্তব্য রাখেন।

রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খান বলেন, শুধু রাজশাহীর পদ্মা নয়, প্রভাবশালীদের লোভের থাবায় এখন নিষ্পেষিত উত্তরাঞ্চলের অসংখ্য নদ-নদী এবং খাল বিল। পদ্মা সহ এসব খাল-বিল সংস্কার করে অবিলম্বে স্বাভাবিক পানি প্রবাহ নিশ্চিতের দাবি জানান তিনি। একই সাথে পদ্মা নদী ক্যাপিটাল ডেজিং করে নৌবন্দর চালুর দাবি জানান জামাত খান।

কর্মসূচিতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আবদুল মান্নান, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট সাইদুল ইসলাম, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন বাপার কেন্দ্রীয় সদস্য আফজাল হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম মতিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রহমান, প্রকৌশলী খাজা তারেক, এনজিও কর্মী সোহাগ আলী, নারী নেত্রী সেলিনা খাতুন, ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম নবী রণি, সোনিয়া খাতুন, রুমানা সিদ্দিকা, যুবনেতা কেএম জোবায়েদ হোসেন, জাহিদ হাসান, ফরাদ আলী রিংকু, অপর্ণা সেন প্রমুখ।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড