• সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১  |   ৩৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নানিয়ারচর আ. লীগ সভাপতির উপর নৃশংস হামলা

  এম. কামাল উদ্দিন, সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার (রাঙামাটি)

১০ মে ২০২৩, ১১:৩৫
নানিয়ারচর আ. লীগ সভাপতির উপর নৃশংস হামলা

পূর্ব শত্রুতার জের এবং অ্যাড. মামুন ভুঁইয়া, জেলা পরিষদ সদস্য ও নানিয়ারচর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইলিপন চাকমার ইন্ধনে আমার উপর অতর্কিত হামলা করা হয়েছে। গত ৩ মে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি দীপংকর তালুকদার দু’পক্ষের মধ্যে একটা সমঝোতা করে দেয়।

এক পর্যায়ে দীপংকর তালুকদার এমপি অ্যাড. মামুনসহ দু’জনকে ক্ষমা চাইতে বলেন।

নানিয়ারচর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতিও আহত আবদুল ওহাব হাওলাদার বলেন, আমি বুড়িঘাট (পুনর্বাসন) ৮নং টিলার একটি চায়ের দোকানে বসে লোকজন নিয়ে চায়ের আড্ডা দেই। এ সময় অতর্কিত ১৪-১৫ জন যুবক আমার উপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে আমি গুরুতর ভাবে আহত হয়ে পড়ি। এ হামলার ইন্ধন দাতা অ্যাড. মামুন ও জেলা পরিষদ সদস্য ইলিপন চাকমা। পূর্বের শত্রুতার জেরেই আমার উপর হামলা চালানো হয়েছে। এ হামলার মূল হোতা ও হুকুমদাতা অ্যাড. মামুন ও ইলিপন চাকমা।

ওহাব আরও বলেন, প্রথমে দলীয়ভাবে বিচার চাইবো পরে আইনের আশ্রয় নেব। আমার উপর যারা হামলা করেছে তারা হলেন- নানিয়ারচর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রুবেল, যুবলীগ নেতা শাহীন, মহিদুল, শাকিল, শরিফুল ও হাফিজসহ অনেকে।

স্থানীয়রা বলেন- গত সোমবার রাত ৯টায় বুড়িঘাট (পুনর্বাসন) ৮নং টিলার একটি দোকানে বসে চায়ের আড্ডা দিচ্ছিল নানিয়ারচর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল ওহাব। এ সময় ১৪-১৫ জনের একটি গ্রুপ এসে অতর্কিত হামলা চালায় ওহাবসহ ৩ জনের উপর। হামলাকারীরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে দ্রুত চলে যায়।

এরপর স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় প্রথমে ওহাবকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে পরে তার বুকের ব্যথা বেড়ে গেলে রাতে রাঙামাটি সদর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে আহত ওহাবের সাথে যুবলীগ নেতাও চিকিৎসাধীন আছেন।

এ দিকে ওহাবের উপর দলীয় হামলার খবর গোটা জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়লে স্থানীয় সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদারের প্রতিনিধি হিসেবে ওহাব হাওলাদারকে রাঙামাটি সদর হাসপাতালে দেখতে যান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজি মুছা মাতাব্বর, রাঙামাটি জেলা যুবলীগ সভাপতি ও মেয়র আবকর হোসেন চৌধুরীসহ জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের দলীয় নেতাকর্মীরা। জেলার দলীয় নেতৃবৃন্দ আবদুল ওহাবের চিকিৎসার খোজ খবর নেন।

অ্যাড. মামুনও ইলিপন চাকমা বলেন, নিজেকে অনিয়ম দুর্নীতি থেকে আড়াল করতে এসব নাটক করছে আবদুল ওহাব হাওলাদার। অতিতেও এ ধরনের নাটক করেছে সে। ভুল বুঝাবুঝির অসান ও সমঝোতা করে দিয়েছেন স্থানী সংসদ সদস্য জননেতা দীপংকর তালুকদার। আমাদের সাথে আবদুল ওহাব হাওলাদারের সাথে প্রকার শত্রুতা নাই। আমরা কেন ইন্ধন দিয়ে তাকে মার খাওয়াব। কে বা কাহারা তাকে মেরেছে তা আমরা জানি না।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড