• সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১  |   ৩৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মাদরাসা কর্তৃপক্ষের স্বেচ্ছাচারিতা ও দুর্নীতির প্রতিবাদে সোচ্চার জনতা

  এম এ মোতালিব ভুইয়া, দোয়ারাবাজার (সুনামগঞ্জ)

০৮ মে ২০২৩, ১৭:৩৬
মাদরাসা কর্তৃপক্ষের স্বেচ্ছাচারিতা ও দুর্নীতির প্রতিবাদে সোচ্চার জনতা

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে ইসলামপুর ছিদ্দিকিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার এটিএম শামসুদ্দিন ও কেরানী আলী আকবরের অবহেলার কারণে ২০২৩ সালের দাখিল পরীক্ষার্থী মো. রুহুল আমিন বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে চলমান দাখিল পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত হওয়ায় মাদরাসার সুপার ও কেরানীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে ও স্বেচ্ছাচারিতা, দুনীতি এবং চাঁদাবাজির কারণে তাদের চাকরিচ্যত/অপসারণ/পদত্যাগের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ সোমবার (৮ মে) বিকাল ৩টায় উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের ইসলামপুর ছিদ্দিকিয়া দাখিল মাদরাসার সংলগ্ন রাস্তায় মাদ্রাসার প্রাক্তন ছাত্র পরিষদ, বর্তমান ছাত্রছাত্রী ও এলাকাবাসীর আয়োজনে সমাজ সেবক আব্দুল মান্নান ফরিরের সভাপতিত্বে মাওলানা আবুল হোসাইনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মাদরাসার প্রাক্তন ছাত্র পরিষদের আহবায়ক পীর মাওলানা গোলামুর রহমান জিলানী, স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল কাদির, সমাজ সেবক আব্দুল হান্নান, মুক্তার হোসেন, মনির হোসেন, আব্দুল ওহাব, সূরুজ মিয়া, আসমত আলী, আব্দুল বারেক, মুক্তার হোসেন প্রমুখ।

বক্তারা বলেন- ১৯৭৩ সাল থেকে সুনামের সাথে পরিচালিত হওয়া এই প্রতিষ্ঠানের বর্তমান সুপার এটিএম শামসুদজ্জামান ও কেরানী আলী আকবর যোগদানের পর থেকেই অনিয়ম দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার আখরায় পরিণত হয়েছে। সুপার ও কেরানীর ঘুষ বাণিজ্যের কারণে অনেক ছাত্রছাত্রীদের জীবন ধ্বংস হয়ে গেছে।

২০২৩ সালের দাখিল পরীক্ষার্থী মো. রুহুল আমিন পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। মাদরাসার সুপার ও কেরানীর দৃষ্টান্তমূলক শান্তি ও স্বেচ্ছাচারিতা, দুনীতি এবং চাঁদাবাজির কারণে তাদের চাকরিচ্যত/অপসারণ/পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন বক্তারা।

অতি দ্রুত সময়ে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা না নিলে বৃহত্তর কর্মসূচির ডাক দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে ইসলামপুর সিদ্দিকীয়া দাখিল মাদরাসার দাখিল পরীক্ষার্থী রুহুল আমিনের রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও প্রবেশপত্রে গরমিল থাকায় পরীক্ষার ৪র্থ দিনে রবিবার (৭ মে) তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এ সময় কেন্দ্র পরিদর্শনে এসে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফয়সাল আহমেদ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে অসদুপায় অবলম্বন করায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন ওই পরীক্ষার্থীকে।

রবিবার গণিত পরীক্ষা চলাকালীন ২ ঘণ্টা পর কেন্দ্রের সচিব কালিম উল্লাহ খাতাপত্রসহ রুহুল আমিনকে অফিসে নিয়ে আসেন এবং রোল দোয়ারাবাজার নং ২৯৩৯৬২ এর রেজিস্ট্রেশন কার্ডসহ সকল কাগজপত্র গরমিল থাকার কারণ দেখিয়ে তার স্বাক্ষরিত নোটিশের মাধ্যমে তাকে বহিষ্কার করা হয় জানা যায় রুহুল আমীন নামে অত্র প্রতিষ্ঠানে দুইজন ছাত্র। দুজনের মধ্যে রুহুল আমীন, পিতা-ইউনুস আলী, সৌদি আরবে চলে যায় কিন্তু তার রেজিস্ট্রেশন হয়।

অপর দিকে রুহুল আমীন, পিতা- আব্দুল ওয়াহাব সে রেজিস্ট্রেশন ফিসসহ যাবতীয় খরচ বহন করার পরও তার রেজিস্ট্রেশন হয়নি কিন্তু সে এডমিট কার্ড পায় এবং সে এরই মধ্যে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিলেন। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালীন সময়ে মাদরাসার ম্যানেজিং কমিটির জরুরি সভা চলছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড