• শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অর্থের বিনিময়ে নিতে হচ্ছে বিনামূল্যের সোলার প্যানেল

তাও মিলছে না সুবিধা

  এম. কামাল উদ্দিন, সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার (রাঙামাটি)

২২ মার্চ ২০২৩, ১৩:৫৯
অর্থের বিনিময়ে নিতে হচ্ছে বিনামূল্যের সোলার প্যানেল
সোলার প্যানেল (ফাইল ছবি)

রাঙামাটির বরকলে বিনামূল্যে সোলার প্যানেল সিস্টেম বিতরণ নিয়ে অফিস খরচের নামে বিপুল টাকা উত্তোলনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রাঙামাটি রিপোর্টার্স ইউনিটিতে দেওয়া এক লিখিত অভিযোগে বলা হয়, ইতোমধ্যে বরকল উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে বহু পরিবার থেকে প্রতি সোলার প্যানেলের জন্য গড়ে ৫ হাজার টাকা আদায় করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও ওয়ার্ড সদস্যসহ কতিপয় ব্যক্তি এসবে জড়িত। অথচ আজ পর্যন্ত কাউকে সোলার প্যানেল বিতরণ করা হয়নি। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ভুক্তভোগী অনেকের অভিযোগ, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বিনামূল্যে সোলার প্যানেল বিতরণের নামে রাঙামাটি জেলার বরকল উপজেলার বড় হরিণা, আইমাছড়া ও বরকল সদর ইউনিয়নে স্থানীয় ওয়ার্ড সদস্য ও কিছু ব্যক্তির মাধ্যমে পরিবার প্রতি পাঁচ হাজার টাকা আদায় করা হয়েছে।

অফিস খরচসহ আনুষঙ্গিক খরচের কথা বলে প্রতি ইউনিয়নের অন্তত ৪০০/৫০০জনের কাছ থেকে বিপুল টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে। বড় হরিণা ইউনিয়নে ১নং ওয়ার্ড সদস্য রিমেশ চাকমা মাঝিপাড়ায়, ২নং ওয়ার্ড সদস্য নতুন কুমার চাকমা নোয়াপাড়ায়, ৩নং ওয়ার্ড সদস্য নিহার বিন্দু চাকমা শুকনাছড়িতে, ৪নং ওয়ার্ড সদস্য শুভরাজ চাকমা দোকানঘাট ও মারিশ্যাছড়ায়, ৬নং ওয়ার্ড সদস্য বিমল কান্তি চাকমা ঢেবাছড়া ও তৈবাং এলাকায় এবং ৮নং ওয়ার্ড সদস্য হেমন্ত চাকমা বড় হরিণামুখপাড়া, উদন চাদারা ও ছোট হরিণামুখপাড়া হতে পরিবার প্রতি অফিসের কথা বলে পাঁচ হাজার টাকা করে আদায় করেন।

এইভাবে একই অজুহাতে আইমাছড়া ও বরকল সদর ইউনিয়নে বিপুল টাকা হাতানো হয়েছে। কিন্তু আজ পর্যন্ত ওইসব ইউনিয়নের কোনোটিতেই সোলার প্যানেল বরাদ্দও দেয়নি পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড। এছাড়াও রাঙামাটির বিলাইছড়ি, লংগদুসহ বিভিন্ন জায়গায় এ ধরনের অভিযোগ পাওয়া যায়।

এ দিকে অভিযোগে বিষয়ে জানতে ফোনে যোগাযোগ করা হলে বরকল সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রভাত কুমার চাকমা বলেন, তিনি একটু ব্যস্ত। এ বিষয়ে পরে কথা বলবেন। এছাড়া বারবার কল দিয়েও রিসিভ করেননি আইমাছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুবিমল চাকমা।

যদিও অভিযোগ অস্বীকার করে বড় হরিণা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লীলাময় চাকমা বলেন, এ ধরনের বিনামূল্যে সোলার প্যানেল বিতরণ নিয়ে তার ইউনিয়নে কারো কাছ থেকে কেউ কোনো টাকা নেননি। যারা এ ধরনের অভিযোগ করছেন, বরং তারাই টাকা হাতানোর চেষ্টা করছেন।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণায় ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ সুবিধা পৌঁছাতে ‘সৌর বিদ্যুৎ স্থাপন’ শীর্ষক প্রকল্পে তিন পার্বত্য জেলার বিদ্যুৎবিহীন দুর্গম এলাকার জনগোষ্ঠীর মাঝে বিনামূল্যে সোলার প্যানেল সিস্টেম বিতরণ করছে সরকার। প্রকল্পের দ্বিতীয় পর্যায়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের মাধ্যমে রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান জেলায় বিনামূল্যে বিতরণের জন্য ৪০ হাজার সোলার প্যানেল সিস্টেম বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

বর্তমানে এসব সোলার প্যানেল বিতরণ প্রায় শেষের দিকে। এ অবস্থায় বিনামূল্যে সোলার প্যানেল সিস্টেম বিতরণের নামে রাঙামাটির বরকলে বহু মানুষের কাছ থেকে বিপুল টাকা উত্তোলনের অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের সোলার প্যানেল বিতরণ কর্মসূচির প্রকল্প পরিচালক মো. হারুন-অর রশিদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ সুবিধা পৌঁছে দিতে পার্বত্য চট্টগ্রামের বিদ্যুৎ সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠীর মাঝে সৌর বিদ্যুৎ স্থাপন প্রকল্পে বিনামূল্যে সোলার প্যানেল সিস্টেম বিতরণ করছে সরকার। এসব সোলার প্যানেল বিতরণে কারো কাছ থেকে একটি পয়সাও নেওয়া হচ্ছে না। বরং পরিবহণ খরচ বাবদ প্রত্যেককে ৬৫০ টাকা করে দেওয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, রাঙামাটির বরকল উপজেলায় এখনো কোনো সোলার প্যানেল বিতরণ করা হয়নি। সেখানে যদি কেউ বিনামূল্যে সোলার প্যানেল বিতরণ নিয়ে মানুষের কাছ থেকে টাকা নিয়ে থাকে, তা অত্যন্ত ঘৃণ্যতম। যারা এ ধরনের কর্মকাণ্ডে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া দরকার। বিষয়টি যাচাই করা হবে।

তার দাবি, সত্যতা পেলে প্রয়োজনে সেখানকার আবেদন বাতিল করা হবে। এমনকি অফিসের কেউ জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড