• সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাতের আঁধারে পুলিশ-জনতার সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় শিক্ষার্থীরা

  মো. শাকিল শেখ, আশুলিয়া (ঢাকা)

১৪ মার্চ ২০২৩, ১১:৪০
রাতের আঁধারে পুলিশ-জনতার সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় শিক্ষার্থীরা

ঢাকার আশুলিয়ায় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পুলিশসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় লেগুনাসহ শতাধিক দোকানপাট ভাঙচুর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এ দিকে সংঘর্ষের ঘটনায় সড়কেও আগুন জ্বালিয়ে দেয় শিক্ষার্থীরা। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। ড্যাফোডিলের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী সিটি ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরাও সড়কে নেমে আসেন।

সোমবার (১৩ মার্চ) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আশুলিয়ার খাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রাত ১০টার দিকে শিক্ষার্থীরা নিজেদের ক্যাম্পাসে ফিরে গেছেন বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে পুলিশ জানায়, আশুলিয়া-চারাবাগ-বিরুলিয়া সড়কের চারাবাগ স্ট্যান্ড এলাকায় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে একটি লেগুনার সঙ্গে ড্যাফোডিলের এক শিক্ষার্থীর মোটরসাইকেলে ধাক্কা লাগে। সে ঘটনায় বাকবিতণ্ডার জেরে স্থানীয়রা সেই মোটরসাইকেলের আরোহী দুই শিক্ষার্থীকে মারধর করেন। পরে বেশকিছু শিক্ষার্থী এক জোট হয়ে চারাবাগ স্ট্যান্ডে এসে হামলা চালান এবং লেগুনা ভাঙচুর করেন।

তখন লেগুনা শ্রমিক ও স্থানীয়রা শিক্ষার্থীদের ধাওয়া দিলে তারা ক্যাম্পাসে ফিরে যান। এর ঘণ্টা খানিক পরে রাতে পুনরায় প্রায় সহস্রাধিক শিক্ষার্থী সড়কে নেমে এসে বিক্ষোভ শুরু করে ও দোকানপাটে ভাঙচুর চালান। পরে পুলিশের ধাওয়ায় ক্যাম্পাসে ফিরে যান শিক্ষার্থীরা।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার এসআই শাহীন আহমেদ নয়ন বলেন, প্রথমত লেগুনার সঙ্গে শিক্ষার্থীদের মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগাকে কেন্দ্র করে ঘটনার সূত্রপাত হয়। পরে কয়েক হাজার শিক্ষার্থী সড়কে নেমে এসে ভাঙচুর চালায়। পরবর্তীকালে আবার শিক্ষার্থীরা ৯টার দিকে পুনরায় রাস্তায় নেমে আসে। আমরা স্থানীয় জনগণকে সরিয়ে রাখতে পেরেছিলাম আগেই। না হলে বড় ধরনের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে যেত। শিক্ষার্থীরা ড্যাফোডিল ক্যাম্পাস থেকে বেরিয়ে ভাঙচুর চালাতে চালাতে চারাবাগ স্ট্যান্ডের দিকে আগাতে থাকে।

তিনি আরও বলেন, এ হামলা চালানোর সময় পুলিশের মুখোমুখি হলে শিক্ষার্থীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাটকেল ছোড়ে। তখন পুলিশের চার সদস্য আহত হয়। পরে পুলিশের বাধার মুখে শিক্ষার্থীরা পুনরায় ক্যাম্পাসে ফিরে যায়। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। ড্যাফোডিল ক্যাম্পাসের সামনেসহ আশপাশে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন আছে। ড্যাফোডিলের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী সিটি ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরাও যোগ দিয়েছিল।

এ ব্যাপারে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির জনসংযোগ বিভাগের কর্মকর্তা আনোয়ার হাবিব কাজল বলেন, লেগুনার সঙ্গে শিক্ষার্থীদের মোটরসাইকেলের ধাক্কার ঘটনায় কিছুটা উত্তপ্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিলো। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড