• শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ১৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিকার দাবি

হোসেনপুরে শত বছরের পৈত্রিক সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ

  সাগর মিয়া, হোসেনপুর (কিশোরগঞ্জ)

০৮ মার্চ ২০২৩, ১৯:৫০
হোসেনপুরে শত বছরের পৈত্রিক সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে শত বছরের দখলকৃত প্রায় তিন একর পৈত্রিক সম্পত্তি চিহ্নিত কিছু ভূমিদস্যু একটি বিশেষ মহলের পৃষ্টপোষকতায় জোরপূর্বক দখলে রেখেছেন। তাই ভুক্তভোগি পরিবারের লোকজন স্থানীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করে জরুরি প্রতিকার দাবি করেছেন।

আজ বুধবার (৮ মার্চ) সকালে ওই সংবাদ সম্মেলনে উপজেলার বীর হাজিপুর গ্রামের ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষে মো: নজরুল ইসলাম ফকির লিখিত বক্তব্যে সাংবাদিকদের জানান, কিশোরগঞ্জ জেলার হোসেনপুর উপজেলাধীন জিনারী ইউনিয়নের হাজীপুর মৌজার ৩৭ নম্বর সিএস খতিয়ান,২৫ নম্বর এসএ খতিয়ান ও ১২২ নম্বর আরএস খতিয়ানের বিভিন্ন দাগে ৩.৪৬ একর ভোগদখলকৃত পৈত্রিক সম্পত্তির মধ্যে বেশির ভাগ সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলে রেখেছেন উপজেলার বীর হাজিপুর গ্রামের চিহ্নিত ভূমিদস্যু আব্দুল বাতেন খাঁ গংয়ের লোকজন।

তিনি আরও জানান, ওই ভূমিদস্যু চক্রের মধ্যে জিনারি ইউনিয়নের প্রয়াত চেয়ারম্যান সোহরাব উদ্দিনের প্রভাবশালী ছেলে আসাদুজ্জামান খাঁ নয়ন প্রতিনিয়ত একটি রাজনৈতিক দলের নাম ভাঙ্গিয়ে দলবল নিয়ে বাড়ি ঘরে হামলা, ভাংচুর, লোটপাট, গাছপালা কর্তন ও প্রাননাশের হুমকিসহ না প্রকার হয়রানি ও ভয়ভীতি প্রদর্শণ করছে। ফলে ভুক্তভোগী পরিবারের পুরুষ লোকজন বর্তমানে বাড়িছাড়া অবস্থায় মানবেতর জীবন যাপন করতে বাধ্য হচ্ছেন। বিষয়টি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বার ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে বারবার অভিযোগ করলেও ওই চিহ্নিত ভূমিদস্যু চক্রের লোকজন প্রভাবশালী হওয়ায় তারা অদ্যবধি কোনো প্রতিকার পাননি। তাই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সু-দৃষ্টি আর্কষনসহ ন্যায় বিচার প্রার্থনা করেছেন তারা। এ সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলার চর হাজীপুর গ্রামের বুলু ফকির ,রতন মিয়া,কাশেম মিয়া হোসেন আলী প্রমুখ।

সরেজমিনে ওইসব অভিযোগের তথ্যানুসন্ধান কালে উপজেলার হাজীপুর গ্রামের আব্দুল বাতেন খাঁ গংরা জানান, ওইসব সম্পত্তি নজরুল ইসলাম গংরা দীর্ঘদিন ধরে ভোগদখল করে আসলেও পূর্বপুরুষের ধারাবাহিকতায় আমাদেরও হিস্যা পাওনা আছে। তাই বর্তমানে আমরা ওইসব সম্পত্তি ভোগদখলে সচেষ্ট রয়েছি।

এ ব্যাপারে উপজেলার জিনারী ইউপি চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম রুহিত জানান, দীর্ঘদিনের কলহকৃত নজরুল ইসলাম গংদের ওইসব সম্পত্তির বিরোধ মিটানোর চেষ্টা করেও অজ্ঞাত কারনে সমাধানে পৌছাঁতে বিলম্ব হচ্ছে। তবে এ বিষয়ে অচিরেই উপজেলার গণ্যমান্য ও নেতৃস্থানীয় ব্যাক্তিদের নিয়ে কিছুটা বড় পরিসরে মিমাংসার উদ্যোগ নিবেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড