• শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মুক্তিযোদ্ধাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন!

  আবুল মনছুর, হাটহাজারী (চট্টগ্রাম)

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪:১৪
মুক্তিযোদ্ধাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন!
মুক্তিযোদ্ধাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করা হচ্ছে (ছবি : অধিকার)

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ফরহাদাবাদ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড মন্দাকিনীতে একজন অসহায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমদ হোসেন চৌধুরীকে গাছের সাথে বেঁধে রেখে এবং নির্যাতন করে দুর্বৃত্তরা সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা করে জায়গা জবর দখল এবং দেয়াল নির্মাণ করে নিয়েছে।

এ ঘটনায় থানায় চারজনের সুনির্দিষ্ট নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে বিবাদী করে মামলা দায়ের করা হয়। এ ঘটনায় পুলিশ নাহিদা সোলতানা (৩৫) নামে এক গৃহবধূকে গ্রেফতার করা হলেও ঘটনার সাথে জড়িত অন্যরা পলাতক রয়েছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, গত বুধবার সকালে একই বাড়ির লোকমান হাকিম এবং তার পরিবার কতিপয় দুর্বৃত্তকে ভাড়া করে ভিটের সাথে লাগোয়া মুক্তিযোদ্ধা আহমদ হোসেন চৌধুরীকে নির্যাতন ও গাছের সাথে বেঁধে একটি জায়গা দখল ও ঐ জায়গায় পাকা দেয়াল নির্মাণ করে। এ ধরণের নির্মম ঘটনা সংগঠিত হলেও স্থানীয় বিচারের আশায় এ মুক্তিযোদ্ধা ঘটনাটি প্রকাশ করেননি।

যদিও মঙ্গলবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘটনাটি ফাঁস হয়ে পড়লে উপজেলা প্রশাসনের নজরে আসে এবং তাৎক্ষণিক ভাবে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহিদুল আলম ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনাটি যাচাই বাছাই করে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেন।

ফরহাদাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শওকত আলম বলেন, গত বুধবার রাতে প্রশাসনসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মিত প্রাচীর ভেঙে দেওয়া হয়। আসামিদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ জানানো হয়।

এ বিষয়ে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুল আলম বলেছেন, আমরা গত মঙ্গলবার রাতে প্রশাসনের কর্মকর্তারাসহ ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করি এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বরাবর ইউএনও মাধ্যমে স্মারক লিপি প্রদান করা হয়। এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দুষ্কৃতকারীদের কঠোর শাস্তি দাবি জানাচ্ছি।

হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিদুল আলম বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা নির্যাতনের খবরটি জানতে পেরে রাতেই মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার, স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ, চেয়ারম্যান ও থানা পুলিশ সহ আমি ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। আমি নিজে উপস্থিত থেকে নির্মিত দেয়ালটি ভেঙে দিয়েছি। এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

হাটহাজারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রুহুল আমিন সবুজ বলেন, এই বিষয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আমরা অভিযুক্ত লোকমানের স্ত্রী নাহিদা সুলতানাকে আটক করেছি এবং তাকে বুধবার কারাগারে পাঠানো হয়। লোকমানসহ তার অন্যান্য সহযোগীদের আটক করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড