• মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯  |   ১৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নয় ব্রিকফিল্ড থেকে আট হাজার ঘনফুট লাকড়ি জব্দ

  মো. নুরুল করিম আরমান, লামা (বান্দরবান)

২৪ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬:৪২
নয় ব্রিকফিল্ড থেকে আট হাজার ঘনফুট লাকড়ি জব্দ

বান্দরবানে লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের ৯টি ব্রিক ফিল্ডে কয়লার পরিবর্তে লাকড়ি পুড়ানোর অপরাধে অভিযান পরিচালনা করেছে বন বিভাগ। লামা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আরিফুল হক বেলালের নির্দেশে ডলুছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা এস. এম. রেজাউল ইসলামের নেতৃত্বে গত শনিবার ও রবিবার এই অভিযান চালানো হয়। এ সময় জব্দ করা হয় আট হাজার ৭০ ঘনফুট জ্বালানি কাঠ।

জানা যায়, ফাইতং ইউনিয়নের দুই কিলোমিটার এলাকায় প্রশাসনের কোনো প্রকার অনুমতি ছাড়াই গড়ে উঠে ২৯টি ইটভাটা। এসব ইট ভাটায় কয়লার পরিবর্তে বনের লাকড়ি পুড়ানোর বিষয়ে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় প্রচুর সংবাদ প্রকাশ হলে নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। পরে গত শনিবার ও রবিবার দুইদিন ধরে থ্রিবিএম, এফএসি, কেবিসি, এমএমবি, ওয়াইএসবি, এমবিএম, বিবিসি, এবিসি-২ ও এবিসি-৩ এ অভিযান চালায় লামা বন বিভাগের ডলুছড়ি রেঞ্জ।

ডলুছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা এস এম রেজাউল ইসলাম বলেন, গত দুইদিনের অভিযানে ফাইতং ইউনিয়নের ৯টি ব্রিকফিল্ড থেকে ৮ হাজার ৭০ ঘনফুট জ্বালানি লাকড়ি জব্দ করা হয়েছে। এ বিষয়ে ৯ ব্রিকফিল্ডের নামে পৃথক পৃথক ইউডিআর মামলা করা হয়েছে।

লাকড়ী আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে লামা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. আরিফুল হক বেলাল জানান, ইট ভাটায় কাঠ পোড়ানোর বিরুদ্ধে অভিযান নিয়মিত চলমান থাকবে। চলতি মৌসুমের শুরুতে ২০২২ সালের ২৩ অক্টোবর থেকে ধারাবাহিকভাবে উপজেলার প্রত্যেকটি ব্রিকফিল্ডে ইট প্রস্তুত কালীন সময়ে ইট পোড়ানোর কাজে কোনো প্রকার জ্বালানি লাকড়ি না পোড়ানোর জন্য নোটিশ দেয়া হয়েছে। যারা এই নির্দেশ অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড