• সোমবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘স্যার অফিসে নেই, দয়া করে দরজা ধাক্কা দিবেন না’

  আবিদ মাহমুদ , রাউজান (চট্টগ্রাম):

১৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫:৩৮
নির্বাচন অফিসার

চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলা নির্বাচন অফিসারের কক্ষের সামনে ‘স্যার অফিসে নেই। দয়া করে দরজা ধাক্কা দিবেন না’ লেখা সম্বলিত একটি একটি বিজ্ঞপ্তি ঝুলছে গত কয়েকদিন ধরে। ফিরে যেতে হচ্ছে নতুনভাবে জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি ও সংশোধন করতে আসা লোকজনদের। চরম ভোগান্তিতে উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার সাধারণ মানুষ।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শ্বশুর মারা যাওয়ার অজুহাতে গত সোমবার থেকে অফিস করছেন না রাউজান উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এস এম এ কাদের। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২ টায় রাউজান উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে গিয়ে কথা হয় সেবাপ্রার্থী একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে। তাদের একজন রাউজানের শেষপ্রান্থ বাগোয়ান ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডের প্রবাসী মো. মিন্টু। তিনি বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতে দুবাই থাকায় জাতীয় পরিচয়পত্র (এন আই ডি) কার্ড করতে পারেননি। তিনি ভোটার নিবন্ধন ফরম জমা দিতে এসে ‘স্যার অফিসে নেই। দয়া করে দরজা ধাক্কা দিবেন না’ লেখাটি দেখে অফিসে থাকা ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে তিনি নিশ্চিত হন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা না আসা পর্যন্ত জমা দেয়া সম্ভব নয়।

ইমরান নামে সুলতানপুর জান আলী মুন্সির বাড়ির এক যুবক এনআইডি সংশোধনের জন্য এসে ফিরে যান।

পশ্চিম গুজরা ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মো. রাশেদ বলেন, আমার নিকটতম প্রবাসী আত্মীয়ের নতুন জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরির জন্য নির্বাচন অফিসে গেলে সকল ডকুমেন্ট প্রদান করার পরও হয়রানি করছে। এ পর্যন্ত দুইবার এসেও কাজ হয়নি। আবারও রবিবার আসতে বলছে।

মো. আরফাত নামে এক তরুন একটি অক্ষর ‘এ’ সংশোধনের জন্য উপজেলার ডাবুয়া ইউনিয়ন থেকে এ পর্যন্ত তিনবার এসে ফিরে যেতে হয়েছে। এক ধরনের হয়রানি বলে মন্তব্য করেন তিনি। শুধু তারা নয়, সেবা না পেয়ে প্রতিদিন উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার শত শত মানুষ। কোনদিন থেকে এই কর্মকর্তাকে পাওয়া যাবে তা অনিশ্চিত। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে তারা।

এ প্রসঙ্গে রাউজান উপজেলা নির্বাচন অফিসের ডাটা এন্ট্রির দায়িত্বে থাকা রকি বলেন, স্যারের শ্বশুর মারা গেছেন। তিনি ছুটিতে আছেন। গত সোমবার থেকে তিনি অফিসে আসছেন না। কখন আসবেন তার নির্ধারিত তারিখ জানাতে না পারলেও আগামী সপ্তাহে যোগদান করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

রাউজান উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার বক্তব্য নেয়ার জন্য তার ব্যক্তিগত নম্বরে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেন নি। এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (চলিত দায়িত্ব) রিদুয়ানুল ইসলাম বলেন, উনার শ্বশুর মারা গেছেন বলে শুনেছি। হয়ত তিনি ছুটিতে আছেন।

উল্লেখ্য, তিনি গত ১৮ ডিসেম্বর রাউজান উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। এর আগে তিনি সন্দীপ উপজেলায় দায়িত্ব পালন করেন। তিনি রাউজানে যোগদানের পর থেকে নানা অজুহাতে পদে পদে হয়রানি করছে বলে অভিযোগ নির্বাচন অফিসে আসা সেবাপ্রার্থী সাধারণ মানুষের।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড