• শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বালু খেকোদের অপতৎপরতায় ক্ষত-বিক্ষত সর্তাখাল

বালুবাহী পরিবহনের দৌরাত্ম্যে বিপর্যস্ত সড়ক

  আবিদ মাহমুদ, রাউজান (চট্টগ্রাম)

১৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬:৪৬
বালু খেকোদের অপতৎপরতায় ক্ষত-বিক্ষত সর্তাখাল

চিরন্তন সেই সুর ‘নদীর এ কূল ভাঙে ও কূল গড়ে এই তো নদীর খেলা। কিন্তু বালু খেকোদের অপতৎপরতায় এ কুল, ওকুল দু কুলই ভাঙছে সর্তাখাল। বালু উত্তোলনে ক্ষত-বিক্ষত রাউজান ও ফটিকছড়ির উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া সর্তাখাল।

এই খাল থেকে উত্তোলন করা বালুবাহী পরিবহনের দৌরাত্ম্যের চাপ পড়ছে সাড়ে তিন কোটির বেশি টাকার নির্মিত হলদিয়া ভিলেজ সড়ক। এ সড়কটি রাউজান ফটিকছড়ি এলাকার মানুষের যোগাযোগের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যমে।

গত দুবছর আগে এই রোডটি রাউজানের সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর সহায়তায় আরসিসি ঢালাইয়ের মাধ্যমে উন্নয়ন করেছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ। জনগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি এখন বড় হুমকিতে আছে বালুও কাঠবাহী ট্রাক ও চাঁদের গাড়ির উৎপাতে।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেছেন- স্থানীয় কিছু বালুও কাঠ ব্যবসায়ী সড়কটির শেষ প্রান্তে থাকা সর্তার খাল থেকে স্যালো পাম্পে উঠানো বালু ও পাহাড়ি এলাকা কাটা কাঠ প্রতিদিন পরিবহন করছে ট্রাক ও চাঁদের গাড়ি যোগে। অনেকেই বলেছেন সড়কটি ভারসহ্য করার ক্ষমতা আছে আড়াই তিনটন। এখন পাঁচ,সাত টন ওজন নিয়ে বালু ও কাঠ পরিবহন হওয়ায় রোডটির স্থায়িত্ব নিয়ে শঙ্কিত স্থানীয়রা। বেপরোয়া গতির বালুবাহী ট্রাক ও চাঁদের গাড়িতে ঘটছে ছোট বড় দুর্ঘটনা।

খবর নিয়ে জানা যায়, সড়কটির উপর দিয়ে বালুও কাঠ পরিবহনের সংবাদ পেয়ে রাউজানের সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী বালু ও কাঠ পরিবহনকারীদের ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন।

সর্তাখাল থেকে যারা বাল উঠাচ্ছে তাদের শনাক্ত করে পুলিশে দিতে স্থানীয় চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দিয়েছেন। স্থানীয়রা বলেছেন এই রোডে পাঁচটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এক দিকে বেপরোয়া গতির বালুবাহী পরিবহনের জন্য শঙ্কিত অভিভাবকেরা। অপর দিকে উড়ন্ত বালুতে এই রোডে চলাচলকারী শিক্ষার্থীর শরীরে ও আশে পাশের প্রতিষ্ঠানে আস্তর সৃষ্টি হচ্ছে। তাছাড়া বেপরোয়া গতিতে চলাচলকারী গাড়ি প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটাচ্ছে।

জানা যায়, এই খাল থেকে বালু উঠানো নিষিদ্ধ। প্রশাসন বিভিন্ন সময় বালু উঠানোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলেও, কিছু সময় বিরতি দিয়ে বালু ব্যবসায়ীরা আবারও তাদের ব্যবসা শুরু করে। এই বিষয়টি নিয়ে কথা বললে স্থানীয় চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম বলেছেন, তিনি সংসদ সদস্যের নির্দেশনা পেয়ে খাল থেকে বালু উত্তোলন ও ভারি গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড