• রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯  |   ১৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ধামরাইয়ে গ্যাস বিস্ফোরণে শিশুসহ দগ্ধ ৫

  মো: মনোয়ার হোসেন রুবেল, ধামরাই (ঢাকা)

০৭ জানুয়ারি ২০২৩, ১৩:৫২
বিস্ফোরণ

ঢাকার ধামরাইয়ে একটি দুতলা বাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডার লিকেজ থেকে বিস্ফোরণের ঘটনায় একই পরিবারের শিশুসহ ৫ জন দগ্ধ হয়েছে। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে ধামরাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে তাদের ঢাকা শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার (৭ জানুয়ারি) ভোর ৫টার দিকে ধামরাই পৌরসভার কুমড়াইল এলাকার কবরস্থান সংলগ্ন কুব্বত আলীর মালিকানাধীন দুতলা বাড়ির নিচ তলায় এক ভাড়াটিয়ার রুমে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন- গার্মেন্টস কর্মী মনজুরুল (৩২), তার স্ত্রী জোসনা (২৫), তাদের দেড় বছরের মেয়ে শিশু মরিয়ম, স্ত্রীর বড় বোন হোসনা (৩০) এবং ভাগনি সাদিয়া (১৮)।

মনজুরুলের বাড়ি নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায়। তিনি পরিবারসহ কুব্বত আলীর বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি গার্মেন্টসে কাজ করতেন।

প্রতিবেশী ভাড়াটিয়া মো. নিজাম শেখ জানান, ভোরে তারা যখন ঘুমিয়ে ছিলেন তখন বিকট একটি শব্দ শুনতে পান। এরপর ভবনের নিচ তলা থেকে ধোঁয়া উঠতে দেখেন। সঙ্গে সঙ্গে নিচ তলায় গিয়ে দেখেন, নিচ তলার রুমে পাঁচজন দগ্ধ অবস্থায় কাতরাচ্ছে। আর আগুনে বিছানার কিছুটা অংশ পুড়ে গেছে। পরে তাদের উদ্ধার করে প্রথমে ধামরাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রতিবেশী আব্দুল মালেক জানান, তাদের রুমে গ্যাসের সিলিন্ডার ছিলো। সেই সিলিন্ডারের কোথাও হয়তো লিকেজ ছিলো যার তারণে গ্যাস বের হইয়ে রুমে ছড়িয়ে পরেছিলো। মঞ্জরুল যেহেতু গার্মেন্টসে চাকরি করেন সেহেতু ভোরে রান্না করার জন্য আগুন জ্বালালে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ নূর রিফফাত আরা বলেন, আগুনে দগ্ধ চারজন আমাদের এখানে আসছিলেন। তাদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর ঢাকা মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়েছে।

বার্ন ইনস্টিটিউটের জরুরি বিভাগের আবাসিক সার্জন ডা. এসএম আউয়ুব হোসেন জানান, তাদের সবার শরীরেই গুরুতর দগ্ধ হয়েছে। তাদের ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

ধামরাই ফায়ারসার্ভিস স্টেশন কর্মকর্তা সোহেল রানা জানান, আজ ভোর সকালে পৌরসভার কুমড়াইল এলাকা থেকে ফোন আসছিলো আগুন লেগেছে। তার একটু পরই আবার ফোন দিয়ে বলে যে আগুন নিভে গেছে আপনাদের আসার দরকার নেই৷ পরে আমরা আর সেখানে যাইনি।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড