• শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

হাড় কাঁপানো শীতে উত্তরে চরমে দুর্ভোগ

  হুমায়ুন কবির সূর্য, কুড়িগ্রাম

০২ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫:২৫
হাড় কাঁপানো শীতে উত্তরে চরমে দুর্ভোগ

কুড়িগ্রামে গত দু’সপ্তাহ ধরে শৈত্যপ্রবাহের ফলে জনদুর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে। গতকাল বিকাল থেকে আজ সকাল ১০টা পর্যন্ত সূর্যের দেখা মিলছে না। উত্তরীয় হিমেল ঠাণ্ডা হাওয়ায় স্থবির হয়ে পরেছে স্বাভাবিক কার্যক্রম।

আজ সোমবার সকালে জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা গত কয়েক দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। এ অবস্থায় সাধারণ মানুষের ভোগান্তি বেড়েই চলেছে। গরম কাপড়ের অভাবে অনেকে কাজে যেতে পারছেন না। প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছে না মানুষ। ফলে নিম্ন আয়ের মানুষের ভোগান্তি বেড়েই চলেছে।

কুড়িগ্রাম পৌরসভা এলাকার চর কুড়িগ্রামের অটোরিক্সাচালক জয়নাল (৪৫) জানান, বাপুরে ঠান্ডাত হাত-পাও শিক নাগি যায়। কাশতে কাশতে অবস্থা খারাপ। দুই দিন বসি আছলং। পেটের দায়ে ফির অটো নিয়া বেড়াইছি। একই কথা জানালেন ঘোষপাড়ার হোটেল শ্রমিক মালেক।

জানালেন, মহাজন ভোর থাকি কামোত আসপের কয়। এই ঠান্ডাত কেমন করি বাড়ী থাকি বেইর হই। ঠাণ্ডা পানি নাড়তে নাড়তে গাত জর ধরছে।

এ দিকে ঘন কুয়াশা আর অতিরিক্ত শিশির ঝড়ার ফলে সদ্য রোপনকৃত বীজতলা নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছে কৃষক। সদর উপজেলার হলোখানা ইউনিয়নের টাপুরচর এলাকার কৃষক ওমেদ আলী (৩৫) জানান, রোদ না পাওয়ায় বীজতলা লালচে হয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও অতিরিক্ত কুয়াশার কারণে বীজতলা পানিতে ডুবে যাচ্ছে বীজও সেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে না।

কুড়িগ্রাম কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক বিপ্লব কুমার মোহন্ত জানান, শৈত্যপ্রবাহ ও ঘন কুয়াশা থেকে বীজতলা নিরাপদ রাখতে আমরা মাঠ পর্যায়ে চাষিদেরকে বীজতলা পলিথিন ঢেকে রাখার পরামর্শ দিচ্ছি। আশা করছি বীজতলার কোনো ক্ষতি হবে না।

হলোখানা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রেজাউল করিম রেজা জানান, টানা শৈত্যপ্রবাহের ফলে নিম্ন আয়ের মানুষের খুব সমস্যা হচ্ছে। তারা কাজে যেতে পারছে না। ফলে আয় বঞ্চিত হয়ে ঘরে বসে থাকতে হচ্ছে। প্রতিবছর বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও বৃত্তবানরা গরম কাপড় দিয়ে সহায়তা করলেও এখন পর্যন্ত কোনো সাড়া মিলছে না। বিশেষ করে শিশুদের জন্য গরম কাপড় ও মহিলাদের জন্য চাদরের চাহিদা রয়েছে।

কুড়িগ্রামের রাজারহাট আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (চলতি দায়িত্ব) সুমন মিয়া জানান, সোমবার সকাল ৯টায় জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ফোরকাস্ট অনুযায়ী এ মাসে দুটি মৃদু ও মাঝারী ধরণের শৈত্য প্রবাহের পূর্বাভাস রয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড