• বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ :

sonargao

নরসিংদীতে জেল থেকে বেরিয়েই বাদীকে কুপিয়ে হত্যা

  নাসিম আজাদ, স্টাফ রিপোর্টার (নরসিংদী)

২৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৪০
নরসিংদীতে জেল থেকে বেরিয়েই বাদীকে কুপিয়ে হত্যা
রামদা (ফাইল ছবি)

নরসিংদীতে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মামলার বাদীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত শনিবার রাতে নরসিংদী শহরের হাজীপুর এলাকা ও ঢাকার বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে শনিবার সকালে হাজিপুর ইউনিয়নের বদরপুর গ্রামের কাদির মিয়া নিজ বাড়িতে প্রতিপক্ষের হামলা গুরুতর আহত হয়। পরে আহত অবস্থায় দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

নিহত কাদির মিয়া বদরপুর গ্রামের হোসেন মিয়ার ছেলে। তিনি পেশায় একজন কৃষক।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- একই গ্রামের আসাদ মিয়ার মেয়ে মোসলেমা, নাতী নাঈম ও লিটন এবং লিটনের চাচা শ্বশুর আলতাফ মেম্বার।

পুলিশ ও স্বজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শনিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে বাড়ির উঠানে চেয়ারে বসেছিলেন কাদির। এ সময় তার চাচা আসাদ মিয়ার পরিবারের সদস্যরা অতর্কিতে হামলা চালিয়ে তাকে উপর্যুপরি কোপাতে থাকেন। তখন কাদির মাটিতে লুটিয়ে পড়লে হামলাকারীরা দ্রুত পালিয়ে যান। পরে স্বজনেরা তাকে গুরুতর জখম অবস্থায় নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকে তাকে ঢাকায় নেওয়া হয়েছিল।

কাদিরের বাবা হোসেন মিয়া সাংবাদিকদের বলেন, আমার বড় ভাই আসাদ মিয়ার নেতৃত্বে তার নাতি, মেয়ে ও স্বজন নিয়ে আমার বাড়ির উঠানে এসে সবার চোখের সামনে ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করেছে।

তিনি আরও বলেন, আমার ২২ শতাংশ জমি তারা জোর করে নিতে চায়। গত ২৫ মে তারা আমাকে ওই জমির জন্য কুপিয়েছিল। আমাকে কোপানোর ঘটনায় ছেলে কাদির তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছিল। ওই মামলায় ২২ দিন জেল খেটে সম্প্রতি তারা বাড়ি ফেরেন। ওই ক্ষোভে তারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

নরসিংদী মডেল থানার ওসি আবুল কাশেম ভূঁইয়া বলেন, জমি ও পারিবারিক দ্বন্দ্বে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নিহত কাদিরকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত থাকা সন্দেহে রাতেই হাজিপুর থেকে আলতাফ মেম্বার এবং ঢাকার বিভিন্ন স্থান থেকে মোসলেমা, নাইম ও লিটনকে আটক করা হয়েছে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এই ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। মামলায় তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড