• বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পদ্মার চরে মাসকলাই চাষ করে চরবাসীর সাফল্য

  আতিয়ার রহমান, দৌলতপুর (কুষ্টিয়া)

২৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১৫:৩১
পদ্মার চরে মাসকলাই চাষ করে চরবাসীর সাফল্য
পদ্মার চরে মাসকলাই চাষ করছেন চরবাসী চাষিরা (ছবি : অধিকার)

পদ্মায় বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পর শীতকালীন ফসল উৎপাদনের আগে মধ্যবর্তী সময়ে মাসকলাই চাষ করে থাকেন চাষিরা। নদী বিধৌত পদ্মার চরে মাসকলাই চাষ করে এ বছরও ব্যাপক সাফল্য পেয়েছেন কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের চাষিরা।

ফলন ভাল হওয়ায় কাটা মাড়াই শেষে ডাল জাতীয় এ ফসল ঘরেও তুলেছেন তারা। কম খরচ ও অল্প পরিশ্রমে অর্থকরী এ ফসল চাষ করে আর্থিক সচ্ছলতাও ফিরেছে দরিদ্র চরবাসীর।

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে চলতি মৌসুমে তিন হাজার ২২০ হেক্টর জমিতে মাসকলাই চাষ হয়েছিল। এর মধ্যে নদী বেষ্টিত পদ্মার চরাঞ্চলে চাষ হয়েছে দুই হাজার ৪০০ হেক্টর জমিতে। মাসকলাই চাষে চাষিদের বিঘা প্রতি খরচ হয়েছে গড়ে মাত্র চার হাজার টাকা। আর বিঘাপ্রতি তিন মন থেকে চার মন পর্যন্ত ফলন হয়েছে।

উৎপাদন খরচ বিহীন ও বিনা পরিশ্রমে মাত্র দুই মাসের ব্যবধানে খরচ বাদ দিয়ে চার হাজার টাকা মন দরে বিক্রয় করে চাষিদের লাভ হচ্ছে আট হাজার থেকে ১২ হাজার টাকা পর্যন্ত।

উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের চল্লিশপাড়া গ্রামের চাষি সোহেল আহমেদ জানান, এ বছর সে তিন বিঘা জমিতে মাসকলাই চাষ করেছিলেন। খরচ হয়েছে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা। চার মন হারে ফলন হয়েছে তার। খরচ বাদ দিয়ে বেশ ভাল লাভ হয়েছে। তবে তিনি বেশি দামের আশায় প্রায় অর্ধেক কলাই সংরক্ষণও করেছেন বলে জানিয়েছেন।

কৃষকের ক্ষেত থেকে পরিপক্ব মাসকলাই গরু বা মহিষের গাড়িতে করে কৃষকের খোলায় পৌঁছে দিয়েও আয় বাড়তি করছেন কৃষকরা। আবার মেশিনে মাসকলাই মাড়াই করেও আয় করছেন কৃষিযন্ত্র ব্যবহারকারীরা। তারা প্রতিমন মাসকলাই মাড়াই করে আড়াই কেজি হারে সংগ্রহ করে তারাও অধিক মুনাফা অর্জন করেছেন বলে জুয়েল হোসেন নামে এক কৃষিযন্ত্র ব্যবহারকারী।

আবার চাষিদের কাছ থেকে মাসকলাই ক্রয় করে খুচরা বাজারে চার হাজার টাকা মন দরে বিক্রয় করে চাষিদের পাশাপাশি খুচরা ব্যবসায়ীরাও লাভবান হয়েছেন বা হচ্ছেন এমন কথা জানিয়েছেন বোরহান আলী নামে এক খুচরা ব্যবসায়ী।

কৃষি বিভাগের পরামর্শের পাশাপাশি বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে আধুনিক ও উচ্চ ফলনশীল জাতের মাসকলাই বীজ সরবরাহ, আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার ও প্রয়োজনীয় প্রণোদনা দেওয়ায় এ বছরও মাসকলাইয়ের ভাল ফলন হয়েছে বলে জানিয়েছেন দৌলতপুর কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. নুরুল ইসলাম।

অনাবাদী পদ্মার চরে অর্থকরী ফসল মাসকলাইসহ সব ধরণের ফসল চাষে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা ও প্রণোদনা পেলে কৃষকদের ফসল উৎপাদনে আগ্রহ বাড়বে বলে জানিয়েছে চরবাসী।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড