• সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পেঁয়াজ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

  রাকিব হাসনাত, পাবনা

২৩ নভেম্বর ২০২২, ১৩:২২
পেঁয়াজ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা
স্বজনদের আর্তনাদ (ছবি : অধিকার)

চাঁদা না দেওয়ায় পাবনায় আব্দুর করিম প্রামাণিক (৬৫) নামে একজন পেঁয়াজ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় মূল অভিযুক্ত মনি সরদার নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) বিকাল ৪টার দিকে শহরতলীর হাজিরহাট পেঁয়াজের আড়তে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আব্দুল করিম দোগাছী ইউনিয়নের বলরামপুর গ্রামের মৃত ইমান আলী প্রামাণিকের ছেলে। গ্রেফতারকৃত মনি আরিফপুর হাজিরহাট এলাকার বাদশা সরদারের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, প্রতিদিনের মত হাট শেষে পেঁয়াজের আড়ত বন্ধ করে বাড়িতে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন নিহত আব্দুল করিম। এমন সময় স্থানীয় মনি নামের একজন গিয়ে টাকা চাঁদা দাবি করেন। এমন সময় সে একটু পরে দেওয়ার কথা বললে ক্ষিপ্ত হয়ে পকেটে থাকা ধারালো ছুরি বের করে কুপিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে হত্যা করে ঘটনাস্থলের একটু পাশেই সে বসে থাকে।

স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এমন সময় হাজিরহাট মোড়ে অভিযুক্তকে বসে থাকতে দেখে তাকে গ্রেফতারের জন্য গেলে পুলিশকেও ছুরিকাঘাত করতে উদ্যত হয়। পরে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

স্থানীয়রা আরও জানান, এর আগেও হাজিরহাট এলাকায় একাধিক হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। প্রায় হত্যাকাণ্ডের ঘটনা কিছু প্রভাবশালী মহল মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তি দিয়ে করিয়ে থাকেন। এলাকার চাঁদাবাজি ও ব্যবসার আধিপত্য বিষয় নিয়ে পূর্ব থেকে হয়ত দ্বন্দ্ব চলে আসছিলো। সঠিক তদন্ত করে হত্যার বিচার দাবি করেন তারা।

নিহতের ছেলে মো. ইলিয়াস বলেন, আমার বাবা একজন অত্যন্ত ভালো মানুষ ছিলেন। কোনো দিন কারও সঙ্গে বিরোধ করত না। আজ সকালও আমাদের জন্য বাড়ার করে দিয়েছেন। ছোট ভাইয়ের জন্য একটি শীতের পোশাকও কিনে দিয়েছিলেন। শুনছি বিকাল ৪টার দিকে বাবার থেকে মনি নামের একজন চাঁদা দাবি করলে দিতে অস্বীকৃত জানালে বাবাকে ধারালো চাকু দিয়ে কুপিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে হত্যা করে। এমন ঘটনায় আমরা তিন ভাই একদম এতিম হয়ে গেলাম। বাবা হত্যার ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত সবাইকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি করেন।

বাবা হত্যার সঙ্গে পর্দার আড়ালে থাকা স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের লোকজন জড়িত আছে বলে দাবি করেন তিনি।

পাবনা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম জুয়েল বলেন, এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। রাতের মধ্যে ঘটনার মূল কারণ জানা যাবে। মরদেহ মর্গে ময়নাতদন্তের দেওয়া হয়েছে। ঘটনা তদন্ত করা হচ্ছে। পর্দার আড়ালের জড়িত থাকলেও খুঁজে বের করা হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড