• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পাবনায় ককটেল বিস্ফোরণ, বিএনপির দেড়শ নেতাকর্মীর নামে মামলা

  রাকিব হাসনাত, পাবনা

২২ নভেম্বর ২০২২, ১৪:৩৫
পাবনায় ককটেল বিস্ফোরণ, বিএনপির দেড়শ নেতাকর্মীর নামে মামলা
অবিস্ফোরিত ককটেল (ফাইল ছবি)

পাবনা শহরে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় বিএনপির সাতজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও দেড়শ নেতাকর্মীর নামে মামলা করেছে পুলিশ।

গতকাল সোমবার (২১ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে পাবনা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রোকনুজ্জামান সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গত রবিবার (২০ নভেম্বর) বিকাল ৫টার দিকে ট্রাফিক মোড়ের ঘোড়া স্ট্যান্ডে ঘটনাটি ঘটে বলে দাবি পুলিশের।

মামলার বাদী হয়েছেন সদর থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) মো. আরিফুল ইসলাম।

মামলার আসামিরা হলেন- পাবনা জেলা যুবদলের আহবায়ক হিমেল রানা, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তসলিম হাসান খান সুইট, জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, ছাত্রদলের সভাপতি আমিনুল ইসলাম, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান প্রিন্স, ছাত্রদল নেতা তরুণ, বিএনপি নেতা স্বপন।

পাবনা জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তসলিম হাসান খান সুইট বলেন, পাবনা শহরের ককটেল বিস্ফোরণের কোন ঘটনা না ঘটলেও নাটক সাজিয়েছে পুলিশ। সে জন্য গায়েবীভাবে বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে মামলা দিয়েছে। চলমান আন্দোলনে বিএনপি নেতাকর্মীরা যাতে অংশ গ্রহণ করতে না পারেন সেই জন্য পুলিশ রহস্যজনক মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। এখন পর্যন্ত থানা থেকে আমাদের নামে কোনো মামলার নোটিশ দেওয়া হয়নি।

পাবনা জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট মাসুদ খন্দকার বলেন, আগামী ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীর সমাবেশে পাবনা থেকে যাতে নেতাকর্মীরা অংশ গ্রহণ করতে না পারেন। এখান থেকে যাতে বিএনপি নেতারা সাধারণ লোকজনকে সমাবেশ নিয়ে যেতে না পারেন সেই ষড়যন্ত্র হিসেবে পুলিশ মামলা করছে।

সরকার পতনের আন্দোলনের অংশ হিসেবে চলমান সমাবেশকে নস্যাৎ করার জন্য সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় গায়েবী ককটেল বিস্ফোরণের মামলা দিয়ে হয়রানি করছে পুলিশ। গত নির্বাচনের আগে যেমন পুলিশ ভৌতিক-গায়েবী মামলা দিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের হয়রানি করেছিল ঠিক আগামী নির্বাচনের আগে এমন মামলা দিচ্ছে। এটা পানির মত পরিষ্কার যে কি জন্য মামলা দিয়েছে।

মামলা-হামলা করে আগামী ৩ ডিসেম্বরের রাজশাহীর জনস্রোত ঠেকাতে পারবে না এই সরকার। এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানান তিনি। অবিলম্বে মামলার প্রত্যাহারের দাবিও করেন তিনি।

পাবনা সদর সার্কেরের অতিরিক্ত পুলিশ পুলিশ সুপার রোকনুজ্জামান সরকার বলেন, বিএনপি ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা রবিবার বিকালে শহরে ককটেল বিস্ফোরণ করে এলাকায় নাশকতার সৃষ্টি করেছে। পরে সেখানে গিয়ে তিনটি ককটেল পাওয়া যায়। পরে অনুসন্ধানে বিএনপি নেতারা জড়িত বলে প্রমাণ পাওয়া যায়। সেদিন রাতেই সাতজনের নাম উল্লেখ ও বাকিদের অজ্ঞাত করে মামলা করা হয়েছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুতই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড