• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মাইগ্রেশনের দাবিতে মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষকে অবরুদ্ধ করল শিক্ষার্থীরা

  মো. শাকিল শেখ, আশুলিয়া (ঢাকা)

১৭ নভেম্বর ২০২২, ১১:৩২
মাইগ্রেশনের দাবিতে মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষকে অবরুদ্ধ করল শিক্ষার্থীরা

ঢাকার আশুলিয়ায় মাইগ্রেশনের দাবিতে একটি বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থীরা প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন।

গত বুধবার (১৬ নভেম্বর) সকাল ১০টা থেকে বিকাল পর্যন্ত আশুলিয়ার নরসিংহপুরে নাইটিংগেল মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ রুহুল কুদ্দুস রুমিকে তার কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করেন শিক্ষার্থীরা। পরে শিক্ষার্থীরা বাইরে এসে অবস্থান কর্মসূচি পালন করতে শুরু করছেন।

কলেজটির শিক্ষার্থী ইমরান খান ইমন বলেন, মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষ আমাদের মিথ্যা আশ্বাস ও আদালতের কিছু কাগজপত্র দেখিয়ে ভর্তি করায়। প্রথম বর্ষে বিএমডিসি রেজিস্ট্রেশন এনে দেবে বলে তারা প্রতিশ্রুতি দেয়। কিন্তু তারা এখনো রেজিস্ট্রেশন এনে দিতে পারেননি। কলেজের শিক্ষা ব্যবস্থা সংক্রান্ত সব সুযোগ-সুবিধা থেকেও তাদের বঞ্চিত করেছে।

তিনি আরও বলেন, এই মেডিক্যাল কলেজ থেকে স্বাস্থ্যশিক্ষা সম্পর্কিত পরিপূর্ণ জ্ঞান অর্জন আদৌ সম্ভব নয়। আর তাই শিক্ষার্থীরা এই মেডিকেল কলেজ থেকে অন্যত্র মাইগ্রেশনের ব্যবস্থা করার জন্য স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, সচিব এবং স্বাস্থ্য ও শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবর আবেদন করেছিলেন। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কলেজ কর্তৃপক্ষও একটি রিট করে আমাদের মাইগ্রেশন বন্ধ করে দেয়। আমরা দ্রুত পদক্ষেপ চাই। যেন আমাদের শিক্ষাজীবনে আলো ফিরে আসে। তাই আজ আন্দোলনের অংশ হিসেবে আমরা অধ্যক্ষ স্যারকে অবরুদ্ধ করে রেখেছি। আমাদের কোনো ব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত তিনি অবরুদ্ধ থাকবেন।

ভুক্তভোগী আরেক শিক্ষার্থী আরিফুর ইসলাম বলেন, জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত ভর্তি বিজ্ঞপ্তি দেখে এই মেডিকেল কলেজে ভর্তি হতে আসি। তখন কলেজ কর্তৃপক্ষ আমাদের জানায়, কলেজের অভ্যন্তরীণ কিছু সমস্যার কারণে ২০১৬ সালের তাদের পূর্ববর্তী শিক্ষার্থীরা মাইগ্রেশন করে অন্যত্র চলে গেছেন। ২০১৭ সালে আমাদের প্রথম ব্যাচ ধরে কলেজের সব কার্যক্রম নতুনভাবে শুরু করবে। ক্লাস শুরুর পর প্রথম বর্ষ কোনো সমস্যা ছাড়া কাটলেও দ্বিতীয় বর্ষে জানতে পারি, এই কলেজের বিএমডিসি রেজিস্ট্রেশন নেই।

এ বিষয়ে অবরুদ্ধ নাইটিংগেল মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ রুহুল কুদ্দুস রুমি বলেন, আমি আগেই প্যাথলজি ডিপার্টমেন্টের শিক্ষক ছিলাম। পরে আমি এইখানে প্রিন্সিপাল হিসেবে ১ সপ্তাহ হলো যোগদান করেছি। আজ শিক্ষার্থীরা আমাকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। আমিও ওদের পক্ষে আছি। ওদের বিষয়ে এমডি ডা. হুমায়ুন আহমেদের সাথে কথা বলছি; উনি আগামী ২৬ তারিখ শিক্ষার্থীদের সাথে বসে সমঝোতা করবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড