• বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সন্তানের লাশ দেখতে যাওয়া হলো না হতভাগ্য পিতার 

  ইয়ার হোসেন সোহান, ঝিকরগাছা (যশোর)

১৩ নভেম্বর ২০২২, ১৪:৪১
সন্তানের লাশ দেখতে যাওয়া হলো না হতভাগ্য পিতার 

মাতৃহারা (অনাথ) ছেলে জিয়াউর রহমান জিয়ার লাশ দেখতে এসে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন হতভাগ্য পিতা জামাল হোসেন (৬৫)। হৃদয়বিদারক এই ঘটনাটি শনিবার সকালে যশোরের ঝিকরগাছার গদখালি পোষ্ট অফিসের সামনে ঘটে।

নিহত জামাল হোসেন বেনাপোল পৌরসদরের কাগজপুকুর গ্রামের মৃত. ছবি মোড়লের ছেলে।

জানা গেছে, জামাল হোসেনের প্রথম পক্ষের স্ত্রীর বড় ছেলে জিয়াউর রহমান জিয়া (৪০) তার নানাবাড়ি ঝিকরগাছা উপজেলার নির্বাসখোলা ইউনিয়নের নওয়ালী গ্রামে তার মায়ের সাথে বসবাস করতেন। গেল তিনমাস আগে জিয়া তার গর্ভধারিণী মাকে হারান।

শুক্রবার রাতে সে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আকস্মিক মৃত্যুবরণ করেন। তার অকাল মৃত্যুর খবর পেয়ে পিতা জামাল হোসেন শনিবার ভোরে তার পরিবারের অন্য সদস্যদের নিয়ে একটি ইঞ্জিনচালিত ভ্যানযোগে নওয়ালী গ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। এ পর্যায়ে পথিমধ্যে ঝিকরগাছা উপজেলাধীন গদখালী বাজারে পৌছলে রাস্তার উপরে থাকা একটি বিড়ালকে বাঁচাতে গিয়ে ভ্যানচালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে দুর্ঘটনা কবলিত হয়।

এ সময় জামাল হোসেন ভ্যান থেকে পড়ে মাথায় মারাত্মকভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হন। সাথে থাকা পরিবারের লোকজন রক্তাক্ত অবস্থায় জামাল হোসেনকে উদ্ধার করে ঝিকরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। এরপর রোগীর অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় ঝিকরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সাড়ে ৯টার দিকে জামাল হোসেন মৃত্যুবরণ করেন।

এ দিকে পিতা-পুত্রের মৃত্যুর সংবাদ শুনে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড