• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মিথ্যা মামলার ছোবল থেকে রেহাই পেতে দিলরুবা বেগমের আকুতি

  মো. রাফিকুর রহমান লালু, রাজশাহী

০৯ নভেম্বর ২০২২, ১২:৩৯
মিথ্যা মামলার ছোবল থেকে রেহাই পেতে দিলরুবা বেগমের আকুতি
সংবাদ সম্মেলন করছেন দিলরুবা বেগম (ছবি : অধিকার)

বাড়ির পানি নিষ্কাশনের ঘটনা নিয়ে মিথ্যা মামলা নিয়ে জেল-হাজতে বাস করছেন রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার ডিঙ্গাডোবা ঘোষমহাল এলাকার সোনা আমিন বাবু।

গত মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে দিলরুবা বেগম অভিযোগ করে বলেন- তার প্রতিবেশী পুলিশের অবসর প্রাপ্ত উপ পরিদর্শক (এসআই) আকতার জোরপূর্বক তাদের বাড়ির পানি নিষ্কাশনের পাইপটি ভেঙ্গে ফেলেন। এ ঘটনায় আকতারকে বাধা দিতে গেলে আকতার রাজপাড়া থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) মাহাফুজকে নিয়ে এসে হুমকি-ধমকি প্রদান করেন।

দিলরুবা বেগম বলেন, এমন ঘটনা নিয়ে আমি রাজপাড়া থানায় মামলা করতে গেলে রাজপাড়া থানা পুলিশ আমার মামলা গ্রহণ করেনি। এমনকি আকতার বাদী হয়ে আমিসহ আমার স্বামী সোনা আমিন বাবু আর আমার শ্বশুর ৭৫ বছরের বৃদ্ধ বনি আমিনের পাশাপাশি কয়েকজনকে আসামি করে একটি নাটকীয় চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেন।

তিনি জানান, এই মামলায় দিলরুবা বেগম আদালত থেকে জামিনে বেরিয়ে আসলেও তার স্বামী সোনা আমিন বাবু এখনো জেল-হাজতে রয়েছেন। তিনি বলেন- সংসারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি মিথ্যা মামলায় জেল-হাজতে থাকার কারণে আমরা মানবেতর জীবন যাপন করছি। অপর দিকে প্রভাবশালী আকতার বিভিন্ন ভাবে আমাদের আবার হুমকি-ধমকি প্রদান করছেন।

প্রভাবশালী আকতারের ভাই আবুল কালাম আজাদ বলেন- আকতার একজন ভয়ংকর প্রকৃতির ব্যক্তি। নিজের সুবিধার জন্য যে কোনো মানুষকে তার রোষানলে ফেলে হয়রানি করতে তিনি বেশ পটু। কিছুদিন পূর্বে তার বাড়ির সীমানা প্রাচীর নিয়ে তার ভাগিনাকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আলোচনায় এসেছিলেন। তখনো তাকে প্রকাশ্যে সহযোগিতা করেছে পুলিশ।

৭৫ বছরের বৃদ্ধা বনি আমিন সংবাদ সম্মেলনে বলেন- এই বয়সে আমি নড়াচড়া করতে রীতিমত হিমশিম খাই। আর আমার নামে মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলা করে আমাকে কোর্টে নিয়েছেন এর জন্য আল্লাহকে বিচার দিয়েছি।

দিলরুবা বেগমের মেয়ে বলেন, আকতার পুলিশের চাকরি থেকে অবসরে যেয়েও তার ভেতর থেকে পুলিশের ভাব যায়নি। ডিঙ্গাডোবা ঘোষ মহাল এলাকায় তার আচরণে সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। এমন ষড়যন্ত্র মূলক মিথ্যা মামলার সঠিক তদন্তের দাবি জানাচ্ছি।

একজন অবসর প্রাপ্ত পুলিশ সদস্য থানা পুলিশের সাথে আঁতাত করে কোনো নিরীহ মানুষকে যেন মিথ্যা ষড়যন্ত্র মূলক মামলায় ফাঁসাতে না পারেন সেই বিষয়ে পুলিশের উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন নির্যাতিতার মেয়ে।

অপর দিকে রাজপাড়া থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) মাহফুজ তাদের বাড়িতে জোরপূর্বক প্রবেশ করে অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজ করাসহ সরাসরি আকতারের পক্ষে (এসআই) মাহফুজ কাজ করার বিষয় নিয়ে শঙ্কিত রয়েছে দিলরুবার পরিবার।

তাদের ধারণা- যে কোনো সময় তাদের আবারও কোনো নাটকীয় মামলায় হয়রানি করা হবে। জানতে চেয়ে রাজপাড়া থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মাহফুজকে মুঠো ফোনে ফোন করলে তিনি বলেন- আকতার রহমানের করা মামলায় আমি তদন্তে গিয়েছি এটি সত্য। তবে হুমকি-ধমকির কোনো ঘটনা ঘটেনি।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড