• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

যাচ্ছে মানব-আসছে ইয়াবা

  মিজানুর রহমান মিজান, টেকনাফ (কক্সবাজার)

০৬ নভেম্বর ২০২২, ১৩:০৫
যাচ্ছে মানব-আসছে ইয়াবা

কক্সবাজারের সীমান্ত ও রোহিঙ্গা অধ্যুষিত টেকনাফ উপজেলায় বর্তমানে মাদক-মানব পাচারের হিড়িক চলছে পাশাপাশি মিয়ানমার থেকে আসছে প্রজন্ম বিধ্বংসী মরণ নেশা ইয়াবা-আইস এর বড়-বড় চালান।

উখিয়া-টেকনাফের বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গা তরুণী-কিশোরীদের পাচার করে বিনিময়ে লাখ লাখ পিস ইয়াবা আমদানি করার ভয়াবহ তথ্য পাওয়া গেছে।

দুর্ধর্ষ মাদক ব্যবসায়ীরা বর্তমানে মানবপাচার-মাদক নিয়ন্ত্রণ করছে। সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের নাফনদী ও সমুদ্র উপকূলবর্তী ইউনিয়ন সেন্ট মার্টিন, সাবরাং,শাহপরীর দ্বীপ,পৌর সভা, টেকনাফ সদর, বাহারছড়া, হ্নীলা, হোয়াইক্যং সহ নাফনদী ও সমুদ্র উপকূলের বিভিন্ন মৎস্য ঘাট দিয়ে মানব পাচারের এয়ারপোর্টে পরিণত হয়েছে পাশাপাশি ফেরার পথে মানব এর বদল করে মিয়ানমার থেকে একই বোট নিয়ে আসছেন ইয়াবা-আইসেই বড় বড় চালান।

জানা যায়, গত দুই মাসে টেকনাফ উপজেলা বিভিন্ন এলাকায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান চালিয়ে বাংলাদেশ থেকে মিয়ানমার হয়ে মালয়েশিয়া পাচারের সময় প্রায় শতাধিক রোহিঙ্গা নারী-পুরুষসহ রোহিঙ্গা ও স্থানীয় দালালকে আটকের পাশাপাশি বিপুল পরিমাণ ইয়াবা উদ্ধার করেছে। ইয়াবা-মানব পাচারের সিন্ডিকেটের মাধ্যমেই অন্তত বিশ ঘাট পয়েন্ট দিয়ে মাদক ও মানব চলছে দেদারসে।

বিশেষ করে সেন্টমার্টিন ছেঁড়া দ্বীপ, দক্ষিণ পাড়া ঘাট, শাহপরীর দ্বীপের জালিয়া পাড়া, গোলারচর, মিস্ত্রি পাড়া, দক্ষিণ পাড়া, পশ্চিম পাড়া ঘাট, টেকনাফ সদরের মহেশ খালিয়া, তুলাতুলী, রেঙ্গুলবিল ঘাট, মিটা পানির ছড়া, হাবিব ছড়া ঘাট, সাবরাংয় ইউপি'র কচুবনিয়া, কাঁটা বনিয়া, বাহাড় ছড়া, মুন্ডার ডেইল, হাদুর ছড়া ঘাট, কুরাইজ্যা পাড়া ঘাট, টেকনাফ পৌর সভার নাইট্যং পাড়া, বড়ইতলী,কেরুনতলী,দমদমিয়া,মোচনী, লেদা, আলীখালি,ফুলের ডেইল, উপকূলীয় ইউনিয়ন বাহারছড়া নোয়াখালী পাড়া,জুম্মা পাড়া, হাজাম পাড়া, কচ্ছপিয়া, বড় ডেইল ঘাটসহ বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে মানব পাচার ও ইয়াবা প্রবেশ হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ বাহারছড়া বিভিন্ন ঘাটের সমুদ্র সৈকত এলাকার পার্শ্ববর্তী বাড়ি ও ঝোপ-জঙ্গলে এনে জড়ো করে রাখে সন্ধ্যা নামার সাথে সাথে তাদের বাহির করে ছোট ছোট ফিশিং বোট দিয়ে মিয়ানমার পৌঁছে দেয় এবং মিয়ানমার থেকে আসার সময় ইয়াবা বড়-বড় চালান নিয়ে ভোরে মাছ আহরণে গেছে ঘাটে ভিড়ে জালে গাইড নিয়ে খালাস করে কারবারিরা।

পাচারের পর মিয়ানমারে এসব রোহিঙ্গা তরুণ-তরুণীর ভাগ্যে কী জুটছে তা আর জানা যাচ্ছে না। সেখানে নিয়ে দ্বিতীয় দফা মুক্তিপণ দাবি করে ফিরে আসা অনেকের অভিযোগ। মিয়ানমার থেকে গভীর সমুদ্র পাড়ি দিয়ে থাইল্যান্ড হয়ে মালয়েশিয়া প্রবেশ করে বলে প্রতিবেদকে নিশ্চিত করেন।

সাম্প্রতিক মিয়ানমার থেকে মুক্তিপণ দিয়ে ফিরে আসা উপজেলার সাবরাং ইউপির ৬ নং ওয়ার্ডের যুবক ইয়াছিন আরফাত অধিকারকে বলেন, আমাকে একটি মানব পাচারকারী দালাল সিন্ডিকেট জোর পূর্বক মালয়েশিয়া পাচার উদ্দেশ্যে টেকনাফ সাবরাং থেকে মুন্ডার ডেইল ঘাট হতে ট্রলারে উঠিয়ে দেয়। পরে মিয়ানমারের পৌঁছে দেয়। সেখানে ১ লাখ বিশ হাজার টাকা মুক্তিপণ দিয়ে ফিরে আসি। বাকিরা সেখান থেকে মালয়েশিয়া চলে যায়।

টেকনাফ কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার লে: কমান্ডার এম আশিক আহমেদ জানান, মিয়ানমার থেকে মালয়েশিয়াগামী মানব পাচারকারী ফিশিং ট্রলার মিয়ানমারে পৌঁছে নিয়ে আসার সময় মাদক নিয়ে আনার বিষয়ে খবর থাকলেও আমাদের গোয়েন্দা কার্যক্রম চলমান রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে সঠিক তথ্য পেলে অভিযান পরিচালক করা হবে। সঠিক তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন।

টেকনাফ মডেল থানার নবাগত (ওসি) আব্দুল হালিম জানান, মানব পাচারের সাথে মাদক কারবারিরা জড়িত দালালদের চিহ্নিত করা হচ্ছে। বিষয়টি আমরা গুরুত্ব সহকারে দেখতেছি। স্থানীয় দালাল মানব পাচারকারী তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন আমরা অভিযান পরিচালনা করা হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড