• সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

গৃহবধূকে খুনের পর আত্মহত্যার খবর প্রচার, বলছে পরিবার

  মো. শাকিল শেখ, আশুলিয়া (ঢাকা)

০৩ নভেম্বর ২০২২, ১৬:০৪
গৃহবধূকে খুনের পর আত্মহত্যার খবর প্রচার, বলছে পরিবার

ঢাকার গাজীপুর কাশিমপুরে ইতি আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূর রহস্য জনক মৃত্যু। তবে ভুক্তভোগী পরিবারের দাবি স্বামীর পরকীয়া প্রেমে প্রতিবাদ করায় হত্যা করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে আত্মহত্যার প্রচারণার অভিযোগ। এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

গত বুধবার (২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় আশুলিয়া নারী ও শিশু হাসপাতাল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এর আগে কাশিমপুর থানাধীন বাগবাড়ী রুস্তম আলীর বাড়িতে ঘটনাটি ঘটে।

নিহত ইতি আক্তার (২৫) আশুলিয়ার জিরাবো কুন্ডলবাগ এলাকার শহীদ শিকদারের মেয়ে। আটক স্বামী মোসলেম উদ্দিন মণ্ডল কাশিমপুর থানার বাগবাড়ী এলাকার রুস্তম আলীর ছেলে (৩০)।

ভুক্তভোগী পরিবার জানায়, ২০১৯ সালের এপ্রিল মাসে মোসলেম উদ্দিনের সাথে ইতি আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ে হওয়ার পরে তাদের সংসারে ইয়াসিন নামে ছেলে সন্তান আছে । বিয়ের পর থেকেই স্বামী মোসলেম উদ্দিন পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনা জানতে পেরে ইতি বিয়ের পর থেকেই প্রতিবাদ করে আসছিলো। যার কারণে প্রতিনিয়ত নেশায় আসক্ত হয়ে তাকে শারীরিক মানসিক নির্যাতন করে করছিলো।

ঘটনার দিন বুধবার বিকালে ইতি আক্তারকে হত্যা করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচারণা চালায়। এরপর ঘটনার মোড় ঘোরাতে আশুলিয়ার নারী ও শিশু হাসপাতালে নিয়ে আসে স্বামী মোসলেম উদ্দিন মণ্ডল। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

নিহতের ফুপু বলেন, বিয়ের হওয়ার পর থেকেই ইতিকে মারধর করতো জামাই। আমাদের বাড়িতেও আসলেও মারধর করতো শ্বশুর বাড়ি তে থাকলেও সব সময় নির্যাতন করতো। একবার মেরে হাত এবং মাঝা ভেঙ্গে ফেলে ছিল। এ নিয়ে অনেকবার বিচার সালিশও হয়েছে। কিন্তু কোনো ভাবেই এই অত্যাচার মারধর থেকে ইতি রেহাই পায়নি। জামাইয়ের পরকীয়া সম্পর্ক থাকার কারণে আমার ভাতিজী প্রতিবাদ করতো।

তিনি আরও বলেন, যার কারণে হত্যা করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা করেছে বলে মিথ্যা প্রচারণা চালায় পাপিষ্ঠ জামাই। ইতিকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে শ্বশুরবাড়ির লোকজন আত্মহত্যার নাটক সাজিয়ে হাসপাতালেই ভর্তি করেছে।

এ বিষয়ে কাশিমপুর থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) রায়হান উদ্দিন বলেন, প্রথমত আশুলিয়া থানা পুলিশ আমাদেরকে এ ঘটনায় ইনফর্ম করে। পরে আমরা এসে আশুলিয়ার নারী ও শিশু হাসপাতাল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে সুরাতহাল শেষে ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে হত্যা নাকি আত্মহত্যা। এখনো পর্যন্ত পরিবারের কোনো অভিযোগ পাইনি। পরবর্তীকালে নিহতের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতেই আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড