• বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কান্না করায় সন্তানকে পানিতে ফেলে খুন করলেন মা

  শেখ শান্ত ইসলাম, খুলনা

০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৫:৪৭
কান্না করায় সন্তানকে পানিতে ফেলে খুন করলেন মা
শিশুর উদ্ধারকৃত মরদেহ (ফাইল ছবি)

খুলনায় এক মাস ৭ দিনের কন্যা শিশু মারিয়ামকে হত্যা করেছে পাষণ্ড মা। কন্যা শিশু ঘাতক মায়ের নাম রীতা বেগম।

গত শুক্রবার রাতে মারিয়মকে হত্যার উদ্দেশ্যে বাড়ির পাশে একটি পুকুরে ফেলে দেয়। গতকাল রবিবার নিজের কন্যা শিশুকে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করেন তিনি।

জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৩ এর বিচারক নাজমুল কবির তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। পরবর্তীকালে তাকে কারাগারে প্রেরণ করেছেন আদালত। ঘাতক রীতা বেগম উপজেলার গাওঘরা গ্রামের সাইফুল ইসলামের স্ত্রী।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মো. এনামুল হক বলেন, বাচ্চাটি জন্ম নেওয়ার পর কান্নাকাটি ও অতিরিক্ত পায়খানা করত। এতে বিরক্ত হয় শিশুটির মা। ঘটনার দিন রাতে শিশুটি কান্নাকাটি করতে থাকে। রাতের খাবার খেয়ে বাড়ির সকলে ঘুমিয়ে পড়ে। সকলের অজান্তে মারিয়মকে ঘর থেকে বের করে পুকুরের দিকে নিয়ে যায়। পরে তাকে পুকুরে ফেলে দিয়ে ঘরে এসে ঘুমিয়ে পড়ে। পরে রাত ১টার দিকে শিশুটির দাদা ঘুম থেকে উঠে দেখেন ঘরের দরজা খোলা। ছেলে সাইফুলকে ঘুম থেকে উঠান। জিজ্ঞাসা করেন, ঘরের দরজা খোলা কেন। এমন প্রশ্নের জবাব তখন তিনি দিতে পারেননি। তখনো তিনি জানেন না যে তার কন্যা শিশুকে পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর ওই বাড়িতে হৈ চৈ শুরু হয়। সকলে খুঁজতে থাকেন মারিয়মকে। পরে ঘরের পাশের পুকুর থেকে শিশুটির ভাসমান লাশ উদ্ধার করা হয়। সারাদিন এ হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি উন্মোচিত করার জন্য চলে নাটকীয়তা। পরবর্তী সময়ে ঘাতক মা রীতা বেগমকে সন্দেহ করা হয়।

এক সময়ে তিনি হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি সকলের কাছে পরিষ্কার করেন। সন্ধ্যায় তাকে বটিয়াঘাটা থানার পুলিশ আটক করে। রাতে সাইফুল বাদী হয়ে রীতা বেগমকে আসামি করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বটিয়াঘাটা থানার ওসি মোহাম্মদ শাহা জালাল বলেন, শুক্রবার ভোর ৬টা ১০ মিনিটের দিকে মারিয়মের ভাসমান লাশ উদ্ধার করে থানায় খবর দিলে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়।

ঘাতক রীতা বেগম প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছেন। জবানবন্দি দিতে রাজি হলে তাকে রবিবার সকালে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড