• মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

১৫ বছর যাবৎ আগর চাষ 

‘লাখ লাখ টাকা ব্যয় করেছি, কখন সুফল পাব জানি না’

  মো.কবির হোসেন, কাপ্তাই (রাঙামাটি)

২১ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:১৯
‘লাখ লাখ টাকা ব্যয় করেছি, কখন সুফল পাব জানি না’
আগর বাগান পরিদর্শন করছেন চাষিরা (ছবি : অধিকার)

পরীক্ষামূলক আগর উৎপাদন করে মান বুঝা যাবে। উৎপাদনে ভালো কিছু পেলে উভয়ের সফলতা আসবে। সিলেট বড়লেখা হতে আগর চাষ ও উৎপাদনে অভিজ্ঞ কিছু লোক কাপ্তাই আগর বাগান সরজমিনে পরিদর্শন করে এবং এর সফলতা ও বিভিন্ন বিষয়ে নিয়ে আলোচনা করেন।

রাঙ্গামাটি পার্বত্য চট্টগ্রাম দক্ষিণ বন বিভাগ ২০০৭-২০০৮ সালে ১৫ বছরের জন্য কাপ্তাই একটি আগর চাষ প্রকল্প হাতে নেয়। বন বিভাগের সাথে স্থানীয় লোকদের সাথে প্রায় দেড়শ জন আগর চাষি অংশীদারভিত্তিতে স্ট্যাম্পের মাধ্যমে চুক্তিবদ্ধ হন। ১৫ বছর প্রায় শেষ। পার্বত্যঞ্চলে এ ধরনের চাষ এটিই প্রথম বলে আগর চাষিরা মত প্রকাশ করেন।

আগর চাষি জাহাঙ্গীর আলম, স্বপন বড়ুয়া, প্রদীপ দে নজরুল ইসলাম বলেন, আগর লাভের আশায় ১৫ বছর যাবৎ লাখ, লাখ টাকা ব্যয় করেছি। কিন্তু কখন এর সুফল পাব জানি না। বন বিভাগের সাথে এ বিষয়ে একাধিক বার বৈঠক বসার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছে। কেউ এ প্রকল্পের বিষয়ে আগর চাষিদের সুষ্ঠু সমাধান দেয়নি।

কাপ্তাই আগর চাষি সমিতির সভাপতি কাজী মাকসুদুর রহমান বাবুল বলেন, বন বিভাগের সাথে অংশীদার ভিত্তিতে ১৫ বছরের জন্য চুক্তিবদ্ধ হই। লাভের আশায়। কিন্তু বন বিভাগের এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ দেখা যায়নি। আগর ১৫ বছর পূর্ণ হলে করণীয় কি? সে ব্যাপারেও কোনো সুষ্ঠু সুরাহা দেয়নি।

চলতি সেপ্টেম্বর মাসে সিলেট হতে আগর চাষে অভিজ্ঞদের কাপ্তাই আগর বাগানে আনা হয়। পর্যবেক্ষক প্রফেসার আবদুল ছবুর জানান, আগে একটি বাগান পরীক্ষামূলক উৎপাদন করলে এর কতটুকু মান বা আগর আসছে কি-না তা বুঝা যাবে।

তিনি আরও জানান। আগর চাষে লাখ টাকা আয় করা সম্ভব। রাঙ্গামাটি দক্ষিণ বন বিভাগ কাপ্তাই রেঞ্জ কর্মকর্তা খন্দকর মাহামুদুল হক মুরাদ জানান বিষয়টি আমার একার নয়। এ প্রকল্পের মেয়াদ শেষ বন বিভাগীয় কর্মকর্তাদের সাথে এ বিষয়ে আলোচনা বা বৈঠক বসলে সমাধান হবে। উভয় এর সুফল ভোগ করতে পারবে। আগর সমিতির লোকজন জানান চলতি সেপ্টেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহে এ বিষয়ে রাঙ্গামাটি দক্ষিণ বন বিভাগীয় কর্মকর্তাদের নিয়ে কাপ্তাইয়ে একটি বৈঠক বসার কথা রয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড