• মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

প্রিয় শিক্ষককে বহিষ্কারের প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন

  মোস্তাকিম সাকিব, মনিরামপুর (যশোর)

১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:২৮
প্রিয় শিক্ষককে বহিষ্কারের প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন
প্রিয় শিক্ষককে বহিষ্কারের প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা (ছবি : অধিকার)

যশোরের মনিরামপুরের ধলিগাতী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমানকে সাময়িক বহিষ্কারের প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন করেছে শিক্ষার্থীরা। গত রবিবার থেকে বিদ্যালয়ে ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। এরই মধ্যে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন কয়েকজন অভিভাবকও। প্রিয় শিক্ষক হাবিবুর রহমানকে না নিয়ে তারা শ্রেণিকক্ষে ঢুকবে না বলে আন্দোলন করেছেন।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোয়াজ্জেম হোসেন। তিনি বলেন, বাচ্চারা কোনো ক্লাস করেনি। তারা হাবিব স্যারকে ছাড়া ক্লাসে ঢুকবে না বলে জানিয়েছে। এরপর দুপুর ১২টা পর্যন্ত বাইরে অবস্থান করে বাচ্চারা বিদ্যালয় থেকে চলে গেছে। কয়েকজন অভিভাবক বাচ্চাদের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন।

প্রধান শিক্ষক আরও বলেন, আমি রবিবার দুপুর ১টার দিকে দায়িত্ব পেয়েছি। নতুন দায়িত্ব পাওয়ায় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কারও মোবাইল নম্বর আমার কাছে ছিল না। এ জন্য শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জনের বিষয়টি কাউকে জানাতে পারিনি।

ধলিগাতী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য রাসেল বাবু বলেন, আমার দুই সন্তান এই বিদ্যালয়ে পড়ে। আমি নিজেও সেখানকার ছাত্র ছিলাম। হাবিব স্যার আমাদের সবার প্রিয়। তাকে অবৈধভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। হাবিব স্যার না ফেরা পর্যন্ত আমরা বাচ্চা বিদ্যালয়ে পাঠাব না।

এ দিকে বহিষ্কারের বিষয়ে ভিন্ন বক্তব্য দিয়েছেন শিক্ষক হাবিবুর রহমান (বহিষ্কৃত) ও পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি।

সহকারী প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান বলেন, আমি বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক। প্রধান শিক্ষক অবসরে যাওয়ায় চলতি বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি আমি ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পাই। বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকসহ একজন সহকারীর পদ খালি আছে। কমিটি টাকার বিনিময়ে পদ দুটিতে নিয়োগ দিতে চান। আমি তাতে রাজি না।

শিক্ষক হাবিবুর রহমান আরও বলেন, বর্তমান কমিটির বিরুদ্ধে আদালতে মামলা চলছে। আদালত আমার বক্তব্য জানতে চাইলে লিখিতভাবে আমি তা পেশ করেছি। আমার নিরপেক্ষ প্রতিবেদন কমিটির বিরুদ্ধে যাওয়ায় চলতি মাসের ৮ তারিখ (বৃহস্পতিবার) তারা আমাকে বহিষ্কার করেছেন।

অভিযোগের বিষয়ে বিদ্যালয়ের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সুমন বলেন, সহকারী প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান আদালতে কমিটির বিরুদ্ধে কথা বলেছেন। এছাড়া তিনি কমিটিকে না জানিয়ে সহকারী এক শিক্ষিকার বেতন আটকে রেখেছেন। তার বিরুদ্ধে অর্থ কেলেঙ্কারির অভিযোগ আছে। এসব কারণে আমরা তাকে দুই দফা কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছি। জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় তাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

সভাপতি সুমন আরও বলেন, কয়েকজন বহিরাগতকে ইন্ধন দিয়ে হাবিব মাস্টার বিদ্যালয়ে বিশৃঙ্খলা করিয়েছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বিকাশ চন্দ্র সরকার দৈনিক অধিকারকে বলেন, ধলিগাতী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জনের বিষয়টি জানা ছিল না। আমি সরেজমিনে বিদ্যালয়ে যাব।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড