• সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চিকিৎসকের ভুলে প্রাণ গেল প্রসূতির, স্বজনদের হাসপাতাল ঘেরাও

  নাজির আহমেদ আল-আমিন, ভৈরব (কিশোরগঞ্জ)

০৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:৩৩
চিকিৎসকের ভুলে প্রাণ গেল প্রসূতির, স্বজনদের হাসপাতাল ঘেরাও
স্বদেশ হাসপাতাল (ছবি : অধিকার)

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ভুল চিকিৎসায় এক প্রসূতিকে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। শহরের কমলপুর নিউ টাউন এলাকার স্বদেশ হাসপাতালের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহতের নাম তাকমিনা বেগম (২১) উপজেলার মিরারচর গ্রামের মো. রফিকুল ইসলামের কন্যা।

এ ঘটনায় নিহতের স্বজনরা বুধবার বিকালে হাসপাতালটি ঘেরাও করে। ফলে বেসরকারি হাসপাতালটির মালিক পক্ষের লোকজন নিহতের স্বজনদের উপর চড়াও হয়। একই সঙ্গে তাদেরকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করারও অভিযোগ উঠেছে। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নিহতের পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, মো. জাকির হোসেন নামে স্থানীয় এক দালালের মাধ্যমে নিহত তাকমিনা বেগমকে গত রবিবার বিকালে সিজারিয়ান অপারেশনের জন্য স্বদেশ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সন্ধ্যার দিকে তাকমিনা সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেয়। কিন্তু নবজাতকের মায়ের শারীরিক অবস্থা ভালো নয় বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তড়িগড়ি করে এম্বুলেন্সের মাধ্যমে তাকে ঢাকা পাঠানো হয়। ঢাকায় নেওয়ার পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। যদিও নবজাতক শিশুটি এখনো বেচে আছে।

নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, হাসপাতালে ভুল চিকিৎসার কারণে তাকমিনার মৃত্যু হয়েছে। আর হাসপাতালেই তার মৃত্যু হয়। বিষয়টি ধামাচাপা দিতেই তড়িগড়ি করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিজেরাই অ্যাম্বুলেন্সের মাধ্যমে রোগীকে ঢাকায় পাঠানোর ব্যবস্থা করেন।

নিহতের বাবা মো. রফিকুল ইসলাম জানায়, ঘটনার পর দিন গত সোমবার মেয়ের মরদেহ দাফন করে আজ (বুধবার) বিকেলে তারা হাসপাতালে এলে মালিকপক্ষের লোকজন তাদের উপর চড়াও হয়। বিষয়টি নিয়ে কথা বলায় তাদেরকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। এছাড়াও বিষয়টি নিয়ে কেউ কথা বললে অবস্থা খুব খারাপ হবে বলে হুমকি দেয়। এমন কি তারা 'প্রয়োজনে ৫০ লাখ টাকা খরচ করবে, তবুও দেখে নিবে' বলেও হুমকি দেন।

খবর পেয়ে গণমাধ্যমকর্মীরা সন্ধ্যার দিকে হাসপাতালে গেলে দেখা যায়, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে হাসপাতালে পুলিশ সদস্যরা নিয়োজিত রয়েছে। এছাড়াও বিষয়টি সমাধানের অর্থাৎ দফারফার জন্য একটি চক্র উভয়পক্ষের লোকজনকে নিয়ে আলোচনায় বসেছেন।

এ সময় অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে স্বদেশ হাসপাতাল মালিকপক্ষের পরিচালক মো. মাজহারুল ইসলাম, কোনো কথা বলতে রাজি হননি। যদিও বিষয়টি সমাধানের জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে বলে ইঙ্গিত দিয়ে বুঝিয়ে দেন।

আর এ বিষয়ে হাসপাতালে উপস্থিত ভৈরব থানা পুলিশের ওসি (অপারেশন) কায়সার আহমেদ জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড