• মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভুল চিকিৎসায় এক স্বপ্নের মৃত্যু, ২০ হাজার টাকায় দফারফা

  মোঃ আফসার খাঁন, কালিয়াকৈর (গাজীপুর)

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:২১
ভুল চিকিৎসায় শিক্ষার্থীর মৃত্যু

অসহায় পরিবারের স্বপ্ন ছিল, মেজো মেয়ে লেখাপড়ার মাধ্যমে একটা চাকরি করে বাক প্রতিবন্ধী বাবার পাশে দাঁড়াবে। কিন্তু তা আর হলো না। হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় শিশু শিক্ষার্থীর মৃত্যুর মাধ্যমে পরিবারের দেখা সেই স্বপ্নেরও মৃত্যু হলো। গত সোমবার সকালে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পূর্ণ হলেও যেন এখনো শোক কাটছে না পরিবারে। এদিকে মাত্র বিশ হাজার টাকা দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করছেন স্থানীয় লোকজন। নিহত হলো, কুড়িগ্রামের রাজারহাট থানার পাটোয়ারী পাড়ার গ্রামের আশরাফুল ইসলামের মেয়ে আরিফা আক্তার (১৩)। সে উপজেলার সিনাবহ খন্দকার পাড়া মডেল স্কুলের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী ছিল।

এলাকাবাসী নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এমন দুঃখজনক ঘটনাটি ঘটেছে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর তানহা হেলথ কেয়ার হাসপাতালে গত রবিবার সন্ধ্যায়। আরিফা দীর্ঘদিন ধরে তার বাবা আশরাফুল, মা আকলিমা খাতুন, বড় বোন আইরিন ও আড়াই মাসের ছোট ভাই আলামিনের সঙ্গে উপজেলার সিনাবহ খন্দকারপাড়া নওশের আলীর বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করত। বাক প্রতিবন্ধী বাবা আশরাফুল বিভিন্ন এলাকায় রাজমিস্ত্রির কাজ করে কোনোরকমে সংসার চালিয়ে আসছিলেন। অনেক কষ্টে বড় মেয়ে আইরিনের বিয়ে দিলেও সংসার চালাতে হিমসিম খাচ্ছেন বাক প্রতিবন্ধী বাবা আশরাফুল। তাই পরিবারের স্বপ্ন ছিল, মেজো মেয়ে আরিফা লেখাপড়ার মাধ্যমে একটা চাকরি করে প্রতিবন্ধী বাবার পাশে দাঁড়াবে। হাল ধরবে অসহায় পরিবারের। কিন্তু পরিবারের সেই স্বপ্নও আর পূরণ হলো না। গত রোববার সকালে আরিফার মাথা ও পেট ব্যাথা হলে তাকে উপজেলার সফিপুর তানহা হেলথ কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করেন পরিবারের সদস্যরা। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. হুসনি আমিন দোলন তার বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরিক্ষা করান। মাথা ও পেট ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেও তার হার্টের চিকিৎসা দেন ওই চিকিৎসক। এরপর তাকে ঔষধ সেবন, ইনজেকশন ও স্যালাইন দেওয়া হলে তার অবস্থার অবনতি হয়। পরে অতিদ্রুত ইসিজি কক্ষে নিয়ে যাওয়া হলে ওই স্কুলছাত্রীর মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে।

পরিবারের অভিযোগ, মাথা ও পেট ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেও তার হার্টের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ফলে ভুল চিকিৎসায় তার মৃত্যু হয়। সেখানে তার মৃত্যু হলেও কৌশলে অতিদ্রুত অন্যত্র রেফার্ড করার চেষ্টা চালায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি টের পেয়ে পরিবারের সদস্য ও স্থানীয় লোকজন ওই হাসপাতালটি ঘেরাও করেন। এসময় বিক্ষুব্ধরা ওই হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ করেন। ৯৯৯-এ ফোনে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলেও তারা হাসপাতালের পক্ষেই কাজ করেছেন। পরে ওই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের নিরাপত্তা কর্মী ও স্থানীয় মৌচাক ফাঁড়ি পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষুব্ধ জনতাকে তাড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। পরে পরিবারের সদস্যদের ভয়ভীতি দেখিয়ে মিমাংসার জন্য চাপ প্রয়োগ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, স্থানীয় নেতা ও মৌচাক ফাঁড়ি পুলিশ। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ২০ হাজার টাকার বিনিময় ও অ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা করে ভয়ভীতি দেখালে পরিবারের লোকজন ওই রাতেই লাশ নিয়ে চলে যেতে বাধ্য হন। গত সোমবার সকাল ১০টার দিকে তাদের পারিবারিক কবরস্থানে ওই স্কুলছাত্রীর লাশ দাফন সম্পূর্ণ করা হয়েছে।

নিহত স্কুলছাত্রীর দুলাভাই হিমেল হোসেন জানান, ভুল চিকিৎসায় আরিফার মৃত্যুর পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কৌশলে রেফার্ড করার চেষ্টা করে। পরে ভয়ভীতি দেখালে বাধ্য হয়ে আমরা লাশ নিয়ে বাড়ি চলে আসছি। ৯৯৯-এ ফোনে পুলিশ গিয়ে যেখানে বলছে, গরীব পরিবার আপনারা মামলা চালাতে পারবেন না। মিমাংসা করে চলে যান। সেখানে আমরা আর কি করতে পারি?

ওই হাসপাতালের ম্যানেজার মোস্তফা হোসেন জানান, শিশু মৃত্যুর ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বা চিকিৎসক কেউ দায়ী নয়। আমরা ঠিকঠাক চিকিৎসা দেওয়ার পরও শিশুটি মারা গেছে। তবে এ ঘটনার পর ওই শিশুর পরিবারকে ২০ হাজার টাকা ও লাশ নেওয়ার জন্য অ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে কোনো ভয়ভীতি দেখানো হয়নি।

কালিয়াকৈর থানাধীন মৌচাক ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) সাইফুল আলম ওই বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি নন বলেই তিনি মোবাইল ফোনটি কেটে দিন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আল বেলাল জানান, ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যুর খবরটি আমার জানা নেই। তবে এ বিষয়ে কেউ লিখিত অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড