• মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভুলে ভরা এসএসসির রেজিস্ট্রেশন কার্ড, মাশুল গুনছে পরীক্ষার্থীরা

  মাজেদুল ইসলাম হৃদয়, ঠাকুরগাঁও

০২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:৩৫
ভুলে ভরা এসএসসির রেজিস্ট্রেশন কার্ড, মাশুল গুনছে পরীক্ষার্থীরা
এসএসসির রেজিস্ট্রেশন কার্ড পূরণ করছেন পরীক্ষার্থীরা (ফাইল ছবি)

ঠাকুরগাঁওয়ের বালীয়াডাঙ্গী উপজেলার বড় পলাশবাড়ী ইউনিয়নের মোড়লহাট জনতা উচ্চ বিদ্যালয়ে সকল এসএসসি পরীক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন কার্ডে ভুল হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বোর্ডের ভুলের মাশুল গুনতে হচ্ছে পরীক্ষার্থীদের। আর এটি সংশোধন করার জন্য প্রত্যেক জনের কাছে সংশোধনী ফি নেওয়া হচ্ছে। টাকা না দিলে রেজিস্ট্রেশন কার্ড পাওয়া যাচ্ছেনা বলে অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীরা।

স্কুলে সরেজমিনে গিয়ে ও প্রধান শিক্ষকের দেওয়া তথ্য মতে, এবারে সে প্রতিষ্ঠান থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে ১২৪ জন শিক্ষার্থী। পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য রেজিস্ট্রেশন কার্ডে সকল শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন কার্ডে ভুল এসেছে। ছেলে শিক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন কার্ডে নাম ছেলের হলেও ব্যবহার করা হয়েছে মেয়ের ছবি। আর অধিকাংশ রেজিস্ট্রেশন কার্ডে নো ইমেজ দিয়ে ক্রস চিহ্ন দেওয়া হয়েছে।পরবর্তীতে আবার নতুন করে সংশোধনের জন্য বোর্ডে তথ্য পাঠানোর জন্য বলা হয়। আর সংশোধন ফি বাবদ শিক্ষার্থীদের কাছে দুইশ করে টাকা চাওয়া হয়।

বোর্ড ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভুলের মাশুলে শিক্ষার্থীদের কাছে টাকা চাওয়ার বিষয়টি মেনে নিতে পারেননি তারা। কর্তৃপক্ষের ভুলের মাশুল বহনে নারাজ পরীক্ষার্থীরা। এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের পরীক্ষার্থী জুয়েল রানা বলেন,আমার রেজিস্ট্রেশন কার্ডে আমার বান্ধবীর ছবি দেওয়া হয়েছে। ভুল হলো বোর্ড আর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের। এখন আমাদের কাছে সংশোধন ফি চাওয়া হচ্ছে। এটি কেমন ধরনের নিয়ম। তাদের ভুলের মাশুল আমরা কেন গুনব।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক শিক্ষার্থী বলেন, ভুল করলেন তারা অথচ আমাদের বলা হচ্ছে টাকা না দিলে রেজিস্ট্রেশন কার্ড দেওয়া হবেনা৷ এটা কেমন কথা৷ আমরা এর সঠিক সমাধান চায়। আমরা কোনো ধরনরে টাকা পয়সা দিতে পারবনা৷

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মোড়লহাট জনতা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সোলায়মান আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমরা বোর্ডে পরীক্ষার্থীদের সকল সঠিক তথ্য পাঠিয়েছি। বোর্ড ভুল করে আমাদের কাছে পাঠিয়েছেন। এবারে পরীক্ষার্থী ১২৪ জন সবার রেজিস্ট্রেশন কার্ড ভুল করেছেন তারা। সেজন্য সংশোধনের জন্য আবার কাগজগুলো পাঠানো হয়েছে। আর বোর্ডে সংশোধনের জন্য দুইশত টাকা করে লাগে। সেটির জন্য পরীক্ষার্থীদের কাছে টাকা চাওয়া হয়। অনেকে দিয়েছে আর অনেকে দেননি৷ তবে সংশোধনীর নতুন রেজিস্ট্রেশন কার্ডগুলো আমাদের হাতে চলে এসেছে।

প্রতিষ্ঠানের ভুলে শিক্ষার্থীদের সংশোধনী ফি দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে বালীয়াডাঙ্গী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন বলেন, এমন কোন বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো খবর পায়নি। আর এখানে যোগদান করার মাত্র কয়েকদিন হল। তবে দ্রুত খোঁজখবর নিয়ে এটির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে৷

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড