• রোববার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ঝুঁকিপূর্ণ জেনেও সড়ক পারাপার করছেন লোকজন

  মো. আকাশ, সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ)

৩১ আগস্ট ২০২২, ১৬:৫৯
ঝুঁকিপূর্ণ জেনেও সড়ক পারাপার করছেন লোকজন
জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সড়ক পারাপার করছেন লোকজন (ছবি : অধিকার)

ঝুঁকিপূর্ণ জেনেও ইউটার্নের সড়ক পারাপারে বাধা মানছেন না জনসাধারণ। মহাসড়কের ইউটার্ন অংশে কোনো ফুটওভার ব্রিজ না থাকায় সড়কটি পারাপার হতে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার শিকারও হচ্ছেন অনেকে। যানজট ও সড়ক পারাপারে ঝুঁকি এড়াতে ইউটার্ন বন্ধ করা হলেও মানছেন না মানুষজন।

এ ইউটার্ন মোড়টিতে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী, চাকরিজীবী ও এলাকাবাসীসহ বিভিন্ন মানুষের চলাফেরা। তবে ফুটওভার ব্রিজ না থাকার ফলে ঝুঁকি নিয়েই সড়কের একপাশ থেকে অন্যপাশে চলাচল করতে হচ্ছে পথচারীদের।

বাংলাদেশ অন্যতম ব্যস্ততম সড়ক ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক। এ সড়ক দিয়ে প্রতিদিন প্রায় ১৫ থেকে ১৮ হাজারের অধিক যানবাহন গাড়ি, বাস, ট্রাক, মিনিবাস, প্রাইভেটকারসহ ছোটখাটো যানবাহন পারাপার হয়ে থাকে। ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের শিমরাইল ইউটার্ন মোড়ে কোনো ফুটওভার ব্রিজ না থাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সড়ক পারাপার হয় এখানকারসহ ও আশপাশের বিভিন্ন মানুষ।

আজ বুধবার (৩১ আগস্ট) সরেজমিনে এমন দৃশ্যের দেখা মিলেছে। স্থানটি ঘুরে দেখা যায়, ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের চিটাগাংরোড এরিয়ায় সড়ক পারাপার এর জন্য দুটি ফুটওভার ব্রিজ এবং পশ্চিম অংশে মাদরাসা/১০তালা রোড সংলগ্নে একটি ফুটওভার ব্রিজ থাকলেই শিমরাইল মোড়ের ইউটার্ন দিয়ে সড়ক পারাপার হয় বেশিরভাগ মানুষজন।

গত ইদুল ফিতরের কিছুদিন পূর্বে মহাসড়কে যেখানে সেখানে গাড়ি ঘুরানো, এবং যখন-তখন সড়ক পারাপারে অবৈধ যেসব ইউটার্ন রয়েছে সেগুলো হাইওয়ে পুলিশ, সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের মাধ্যমে বন্ধ করা হয়েছিল। যার মধ্যে শিমরাইল মোড় ইউটার্নও রয়েছে।

এভাবে ঝুঁকি নিয়ে পারাপারে বিপদ দিনদিন বাড়বে বলেও অভিযোগ করেন অনেকে। সাধারণ মানুষ মনে করছে একটি ফুটওভার ব্রিজ অত্যন্ত জরুরি।

সড়ক পারাপারকালে সৈয়দ আলীর সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, আমরা সবসময় এ ইউটার্ন দিয়া রাস্তা পারাপার হই। কারণ এখান থেকে খুব সহজেই রিক্সা নিয়ে বাসায় যাওয়া যায়। একটা ফুটওভার ব্রিজ হইলে আমাগো লাইগা উপকার হইতো। অনেক সময় গাড়িওয়লারা অনেক তারাহুরা করে গাড়ি চালায়। তখন অনেক ঝুঁকি থাকে আমাগো।

চিটাগাংরোড মার্কেটের এক ব্যবসায়ী শিমুল রাজ বলেন, আমরা দীর্ঘদিন যাবত এখানে ব্যবসা করি। আগে ঢাকা থেকে দোকানের পণ্য শিমরাইল ইউটার্নে নামিয়ে দিতো গাড়ি চলকরা। সেখান থেকে রিক্সা নিয়ে মার্কেটের সামনে আসা যেত। এখন ইউটার্ন বন্ধ থাকায় অনেক ঝুঁকি নিয়ে সড়ক পারাপার হয়ে পণ্য নিয়ে আসি। যার কারণে সিএনজি চালকরা অতিরিক্ত ভাড়া নেন, কারণ কাঁচপুরের ব্রিজের নিচে দিয়ে চিটাগাংরোড মার্কেটের সামনে আসে তারা।

তিনি আরও বলেন, আমার মনে হয় এখানে একটা ফুটওভার ব্রিজের অনেক প্রয়োজন।তাহলে আমরা আমাদের জীবনের ঝুঁকি ও ভাড়া বাণিজ্য এড়াতে পারবো।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সড়ক ও জনপথ বিভাগের (সওজ) উপ প্রকল্প ব্যবস্থাপক শাখাওয়াত হোসেন শামীম বলেন, শিমরাইল মোড়ের পাশেই চিটাগাংরোডে দুটি ফুটওভার ব্রিজ রয়েছে তাও মানুষজন এখান দিয়ে চলাচল করে। এখানকার ইউটার্ন দিয়ে পারাপারের জায়গায় আমরা বন্ধ করে দিয়েছি। আপাতত কোনোমতে বন্ধ করা হলেও। সামনে এটা ভালো ভাবে ব্যারিকেড দিয়ে বন্ধ করা হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড