• বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সালিশ মীমাংসার কথা বলে টাকা নেন কাউন্সিলর

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৮ আগস্ট ২০২২, ১৭:৩১
সালিশ মীমাংসার কথা বলে টাকা নেন কাউন্সিলর
অভিযুক্ত কাউন্সিলর নাহার যুবায়ের কণা (ফাইল ছবি)

ফরিদপুর পৌর এলাকার ২১নং ওয়ার্ডের চরকমলাপুর গ্রামে পৈত্রিক সম্পত্তি বণ্টনের সমস্যা সালিশের মাধ্যমে সমাধান করে দিবেন বলে ৭০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ১৫, ২০ ও ২১নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর নাহার যুবায়ের কণার বিরুদ্ধে।

অভিযোগকারী রাশেদা বেগম বলেছেন, আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি বণ্টন নিয়ে ভাইবোনদের মধ্যে ঝামেলা হয়। এই ঝামেলা মীমাংসার জন্য পৌরসভার মেয়র বরাবর আবেদন করি। মেয়র মহোদয় আমাদের কাউন্সিলর মোবারক খলিফা ও মহিলা কাউন্সিলর নাহার যুবায়ের কণা উপর দায়িত্ব দেন এই সমস্যা সমাধানের।

তিনি আরও বলেন, এক পর্যায়ে নাহার যুবায়ের কণা আমার এ সমস্যা দ্রুত সমাধান করে দিবে বলে নানা ধরনের খরচের কথা বলে আমার কাছে এক লক্ষ টাকা দাবি করেন। আমার কাছে তখন টাকা না থাকায় কয়েকদিন পর টাকা দিব বলে জানাই। এ ঘটনার কয়েকদিন পর ছাগল বিক্রি করে ও ধারদেনা করে ৭০ হাজার টাকা জোগাড় করে তার বাসায় গিয়ে দিয়ে আসি। কিন্তু আজ পর্যন্ত তিনি আমার এ সমস্যা সমাধান করে দেননি।

ভুক্তভোগীর অভিযোগ, টাকা পাওয়ার পর তিনি আমার সাথে একবারের জন্য যোগাযোগ করেন নাই। ফোন করলে ফোনও ধরেন না। টাকাও ফেরত দেন না। যেহেতু তারা তারা আমার সমস্যা সমাধান করে দিতে পারবে না তাহলে আমার টাকা আমাকে ফেরত দিক। আমি মেয়রের কাছে এর সমাধান চাই।

বিষয়টি নিয়ে নাহার যুবায়ের কণার সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে কোনো সদুত্তর পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে পৌর মেয়র অমিতাভ বোস বলেন, টাকা নেওয়ার বিষয়টি আমি শুনেছি, তবে তিনি টাকা নিয়ে ভালো কাজ করেননি। জনগণের সেবা দিয়ে কেন টাকা নিতে হবে। আমার কোনো কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ নেই। তিনি কেন টাকা নিলেন তা আমরা দেখব।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড