• রোববার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯  |  
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এক লাখ ৭০ হাজার পিস ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ছয় নাগরিক আটক

  মিজানুর রহমান মিজান, টেকনাফ (কক্সবাজার)

১৬ আগস্ট ২০২২, ১৭:৪৬
এক লাখ ৭০ হাজার পিস ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ছয় নাগরিক আটক
বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ আটককৃত মিয়ানমারের নাগরিকরা (ছবি : অধিকার)

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর টেকনাফ বিশেষ জোন ও টেকনাফ কোস্টগার্ড সদস্যরা সাগরে যৌথ অভিযান চালিয়ে এক লাখ লাখ ৭০ হাজার পিস ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ছয়জন নাগরিককে আটক করেছে। এ সময় ইয়াবা পাচারে ব্যবহৃত একটি ফিশিং বোটটিকেও জব্দ করা হয়।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) ভোররাত ৩টার সময় সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপ হতে ৩ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণ পূর্বে বাংলাদেশ সীমানায় অভিযানটি চালানো হয়।

এরপর একই দিন দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেন মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক সিরাজুল মোস্তফা ও কোস্টগার্ড বিসিজি স্টেশান টেকনাফের লে. কমান্ডার আশিক আহমেদ।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, মাদকের একটি বড় চালান মিয়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করবে, এমন প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে কোস্ট গার্ডের লে. কমান্ডার আশিক আহমেদ (ট্যাজ) বিএন এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল মোস্তফার নেতৃত্বে সেন্টমার্টিন সাগর এলাকায় যৌথভাবে একটি বিশেষ অভিযান চালায়।

১৬ আগস্ট আনুমানিক রাত ৩টায় সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপ হতে ৩ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণ পূর্বে মিয়ানমার সীমান্ত হতে একটি ফিশিং বোট বাংলাদেশ সীমানায় আসতে দেখা যায়। ওই বোটটিকে, টর্চ ও বাঁশির মাধ্যমে থামার সংকেত দিলে বোটটি না থেমে গতিবিধি পরিবর্তন করে মিয়ানমারের দিকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক সিরাজুল মোস্তফা জানান, যৌথ আভিধানিক টিমের সদস্যরা ধাওয়া করে উক্ত বোটের কাছে গেলে উক্ত বোট থেকে রেইডিং টিমের সদস্যদের উপর দেশিয় অস্ত্রশস্ত্র দ্বারা আক্রমণের চেষ্টা করা হয়।

এ সময় কোস্টগার্ড সদস্যরা ৪ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়েন। পরবর্তীকালে রেইডিং টিম সদস্যরা উক্ত বোটে তল্লাশি চালিয়ে এক লাখ ৭০ হাজার পিস ইয়াবা ও একটি সীমকার্ড বিহীন স্মার্টফোন (ভাঙ্গা) জব্দ করে। এ সময় ইঞ্জিন চালিত কাঠের বোটসহ ছয়জন মিয়ানমার নাগরিককে আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- মিয়ানমারে আকিয়াব জেলার ঘাটিয়াখালি থানার মাস্টর দিল মোহাম্মদ প্রদিল্লা মাঝি এলাকার মৃত নুর আহম্মদের ছেলে কেফায়েত উল্ল্যাহ (২২), মৃত আব্দুল গফফারের ছেলে মো. শরিফ (২৭), জালাল উদ্দিনের ছেলে মো. হোছন (৩৮), মৃত হারেদের ছেলে ছৈয়দুর রহমান (৪৩), মৃত রশিদ আহম্মদের ছেলে মো. হোছন (২৭) ও নুর কবিরের ছেলে নুর হোসেন (২১)।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক সিরাজুল মোস্তফা জানিয়েছেন, জব্দকৃত ইয়াবা, কাঠের বোটসহ আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড