• রোববার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯  |  
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বাল্য বিবাহ বন্ধ করলেন ইউএনও

  জিল্লুর রহমান, ফরিদপুর

০৯ আগস্ট ২০২২, ১৩:০৫
বাল্য বিবাহ বন্ধ করলেন ইউএনও
বাল্য বিবাহ হচ্ছে (ফাইল ছবি)

ফরিদপুর সদর উপজেলা প্রশাসন ও একটি নারী সংগঠনের হস্তক্ষেপে ফরিদপুরে বাল্য বিয়ের হাত থেকে রক্ষা পেল ১৩ বছর বয়সী এক কিশোরী।

ওই কিশোরী একটি বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তার বাড়ি ফরিদপুর সদরের কানাইপুর ইউনিয়নের একটি গ্রামে। রবিবার দুপুরে ওই কিশোরীর সাথে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল পাশের রাজবাড়ী জেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের একটি গ্রামের ২৯ বছর বয়সী এক তরুণের।

এরপর খবর পেয়ে ফরিদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিটন ঢালী এ বাল্য বিবাহ বন্ধ করে দেন। তথ্য দিয়ে আদালতকে সহায়তা করে নারী সংগঠন নন্দিতা সুরক্ষা।

নন্দিতা সুরক্ষার সভাপতি তাহিয়াতুল জান্নাত জানান, বাল্য বিবাহসহ কিশোরী ও নারী নির্যাতন দমনের জন্য তাদের একটি হেল্প লাইন আছে।

ওই হেল্প লাইনে কিশোরীটি যে বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে তার সহপাঠীরা এ বাল্য বিবাহ আয়োজনের ব্যাপারে তথ্য দিলে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দুপুরে ওই কিশোরীর বাড়িতে বিয়ে উপলক্ষে রান্না করা হয়। বরযাত্রীরাও চলে এসেছিল। প্রশাসনের লোকজন এসে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেয়। পরে অতিথিদের খাইয়ে বিদায় করে দেওয়া হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লিটন ঢালী বলেন, স্থানীয় ইউপি সদস্যের সহায়তায় এ বাল্য বিবাহের আয়োজন বন্ধ করে দেওয়া হয়।

পাশাপাশি কিশোরীর বয়স ১৮ না হওয়া পর্যন্ত বিবাহের আয়োজন করা হবে না মর্মে কিশোরীর অভিভাবকের কাছ থেকে মুচলেকা নেওয়া হয়। এ বিষয়টি নজরদারিতে রাখার জন্য ইউপি চেয়ারম্যান বেলায়েত ফকিরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড