• রোববার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আসন্ন নির্বাচনে শামীম ওসমান থাকছেন কি না, আলোচনা নারায়ণগঞ্জে

  তুষার আহমেদ, নারায়ণগঞ্জ :

০৮ আগস্ট ২০২২, ১১:২০
শামীম ওসমান
শামীম ওসমান। ছবি-সংগৃহীত
যে আলোচনায় শামীম ওসমান

# ঘোষণা দিয়েছিলেন নির্বাচন করবেন না তিনি

# নির্বাচন ঘনিয়ে আসায় বাড়ছে কৌতুহল

দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনের বছর ঘনিয়ে আসায় আলোচনা শুরু হয়েছে নারায়ণগঞ্জের রাজনৈতিক অঙ্গনে। এ জেলার পাঁচটি আসনের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসন নিয়ে কৌতুহল বেড়েছে সর্বমহলে।

আসনটির আলোচিত ও প্রভাবশালী সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান আগামীতে প্রার্থী হবেন কি না- তা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন, বাড়ছে কৌতুহলও। তার মাঠ পর্যায়ের কমী-সমর্থকরাও তা নিয়ে চিন্তিতও বটে!

এ প্রশ্ন, কৌতুহল ও চিন্তার উৎপত্তি হয়েছে খোদ শামীম ওসমানের দেয়া বক্তব্যকে কেন্দ্র করেই। আগামীতে নির্বাচন করবেন না বলে তিনি নিজে থেকেই ঘোষণা দিয়েছিলেন বারংবার। নির্বাচনের সময় ঘনিয়ে আসায় তার ওই ঘোষণাগুলোই ভাবিয়ে তুলছে কর্মী সমর্থকদের।

জানা গেছে, শামীম ওসমান বেশ কয়েক বারই নির্বাচন না করার বিষয়ে ঘোষণা দিয়েছেন। এর মধ্যে ২০১৯ সালের ২২ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় আওয়ামী লীগ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের সাথে মতবিনিময় সভায় শামীম ওসমান বলেছিলেন, ‘আমাদের স্লোগান হওয়া উচিত চেঞ্জ দ্য ইমেজ, চেঞ্জ দ্য নারায়ণগঞ্জ। আমি ওপেন ডিক্লেয়ার দিচ্ছি নির্বাচন করব না।’

হুট করে নির্বাচন না করার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়ায় তিন তিনবার সংসদ সদস্য হওয়ার গৌরব অর্জন করা শামীম ওসমানের কর্মী সমর্থকসহ নারায়ণগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষের মাঝে তুমুল আলোচনা সৃষ্টি হয়েছিল। তার সেই ঘোষণা জাতীয় গণমাধ্যমেও গুরুত্ব সহকারে প্রকাশ পায়। ফলে নারায়ণগঞ্জ পেড়িয়ে দেশজুড়ে আলোচনায় আসে শামীম ওসমানের সেই ঘোষণা।

এর কিছু দিন পর ২০১৯ সালের ২ মার্চ শহরের ২নং রেলগেইট এলাকায় এক জনসভায় শামীম ওসমান বলেছিলেন, ‘আগামীতে নির্বাচন করার ইচ্ছা আমার নাই। এমপি মন্ত্রিত্ব আমার দরকার নাই। এর আগে দুই দুই বার আমাকে মন্ত্রী হবার জন্য বলা হয়েছিল। আমি মনে করি, আমার নেত্রী শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হবেন, আর তার পাশে সেই মন্ত্রীসভায় আমি থাকবো, সে যোগ্যতা আমার এখনও হয় নাই। আমি আমার মাতৃতুল্য নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কর্মী হিসেবেই থাকতে চাই।’

একই বছরের ২৮ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ রেবতী মোহন পাইলট স্কুল এন্ড কলেজের নবীণ বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে পুনরায় সেই ঘোষণা দেন তিনি। শামীম ওসমান বলেন, ‘অনেকেই আমাকে বলেছেন যে, আপনি বারবার বলেন ইলেকশন করবেন না? হ্যাঁ, আমিও বলি আমি ইলেকশন করবো না। ৯০% সত্য আমি ইলেকশন করবো না, যদি আমার নেত্রীর উপর কোনো আঘাত না আসে। কারণ এটা আমার পেশা না।’

অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপর কোন আঘাত আসলে তিনি নির্বাচন করবেন নেত্রীর হাতকে শক্তিশালি করতে। তার সেই বক্তব্য নিয়েও ভিন্ন ভিন্ন ব্যাখ্যা করছেন রাজনৈতিক মহল।

অনেকেই তার এই বক্তব্যকে রাজনৈতিক কৌশল হিসেবে দেখছেন। আবার কেউ কেউ বলছেন, এই আসনে তার পরিবারের কাউকে স্থলাভিষিক্ত করতে পারেন শামীম ওসমান।

এক্ষেত্রে তার স্ত্রী সালমা ওসমান লিপি এবং পুত্র অয়ন ওসমানের কথাও ভাবছেন কেউ কেউ। ইতিমধ্যে সালমা ওসমান লিপিকে বিভিন্ন কার্যক্রমের মাধ্যমে আলোচনায় আসতে দেখা গেছে। তবে সালমা ওসমান লিপি এবং অয়ন ওসমান কেউ-ই আওয়ামী লীগের দলীয় পদে নেই। ইতিপূর্বে তাদের উভয়কে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের কার্যকরি সদস্য পদে রাখা হলেও তারা ওই পদ থেকে নিজেদের সরিয়ে নিয়েছেন।

জানা গেছে, ৭ম জাতীয় নির্বাচন থেকে শুরু করে এখনো পর্যন্ত তিন তিনবার নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে এমপি হয়েছেন শামীম ওসমান। যার শুরুটা হয়েছিল ১৯৯৬ সনে।

২০০১ সালের ৮ম জাতীয় নির্বাচনে দলের মনোনয়ন পেলেও সেবার সফল হননি তিনি। ফলে বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর রাজনৈতিক প্রতিকূলতার কারণে দেশ ত্যাগ করেন আলোচিত এই রাজনীতিবিদ।

৯ম জাতীয় নির্বাচনে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশা করলেও শেষতক তারই চাচি চিত্র নাইকা সারাহ বেগম কবরীকে প্রার্থী হিসেবে বেছে নেন আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড।

২০০১ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ প্রায় ১৪ বছর বেশ চড়াই-উৎরাই পাড়ি দিতে হয় এই আওয়ামী লীগ নেতাকে।

২০১৪ সালের ১০ম জাতীয় নির্বাচনে সুদিন ফেরে শামীম ওসমানের। ওই নির্বাচনে দ্বিতীয় বারের মত এমপি হন তিনি। এরপর ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় নির্বাচনে তৃতীয় বারের মত এমপি হওয়ার গৌরব অর্জন করেন শামীম ওসমান।

এদিকে, দ্বাদশ নির্বাচন ঘনিয়ে আসায় শামীম ওসমানের দেয়া ঘোষণাগুলোই নতুন করে আলোচনায় এসেছে। শেষ পর্যন্ত তিনি তার কথায় অটল থাকবেন নাকি আবারও প্রার্থী হবেন তা ভাবিয়ে তুলছে কর্মী সমর্থকদের।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড