• শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক, গুনতে হচ্ছে বাড়তি ভাড়া

  মো. আকাশ, সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ)

০৬ আগস্ট ২০২২, ১৭:৪২
জ্বালানী

জ্বালানী তেলের দাম বৃদ্ধির অজুহাতে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের দূরপাল্লার বেশিরভাগ যানবাহনের ভাড়া বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে করে ভোগান্তিতে পড়েছে দূরপাল্লার যাত্রীরা। তবে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। এদিকে আঞ্চলিক রুটেও বেশি ভাড়া আদায়ের বিষয়টি লক্ষ্য করা গেছে। তবে যাত্রীদের যানবাহনের জন্য দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করতে দেখা যায়নি।

শনিবার (৬ আগস্ট) দুপুরে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের শিমরাইল মোড়ে সরেজমিনে গিয়ে এমনই দৃশ্যের দেখা মিলেছে।

শিমরাইল মোড়ের টিকেট কাউন্টারগুলোতে ঘুরে দেখা যায়, শিমরাইল থেকে কুমিল্লার ভাড়া ২০০ টাকার পরিবর্তে ৩০০ টাকা, কুমিল্লার ভাড়া ৪০০ টাকার পরিবর্তে ৫৫০ টাকা, চট্রগ্রামের ভাড়া ৫৮০ টাকার পরিবর্তে ৬৫০ টাকা, সিলেটের ভাড়া ৫৭০ টাকার পরিবর্তে ৬৫০ টাকা, ব্রাক্ষণবাড়িয়ার ভাড়া ২৫০ টাকার পরিবর্তে ৩০০ টাকা নিচ্ছে। এছাড়া এসি বাসগুলোতে নির্ধারিত ভাড়ার তুলনায় ২০০-৩০০ টাকা বেশি নিতে দেখা গেছে। এছাড়া ছোট পরিবহনগুলোতেও ভাড়া বাড়তি নিচ্ছে চালকরা। তবে টিকেট কাউন্টারগুলোতে যাত্রীদের তেমন চাপ লক্ষ্য করা যায়নি। এদিকে এখনো কিছু যানবাহনে ভাড়া বৃদ্ধি করা হয় নি। তারা বাস মালিকের নির্দেশের অপেক্ষায় রয়েছেন।

এদিকে আঞ্চলিক রুটেও বেশি ভাড়া আদায়ের বিষয়টি লক্ষ্য করা গেছে। শিমরাইল মোড় থেকে যাত্রাবাড়ীর ভাড়া ২০ টাকার পরিবর্তে ৩০ টাকা, গুলিস্থানের ভাড়া ৩০ টাকার পরিবর্তে ৩৫ টাকা নিতে দেখা গেছে।

বাড়তি ভাড়া আদায়ের বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন বাসের হেলপার জানান, জ্বালানী তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় আমরা বেশি ভাড়া নিতে বাধ্য হচ্ছি। তবে যানবাহন মালিক আমাদের যে ভাড়া নির্ধারণ করে দিয়েছে সে ভাড়াই নিচ্ছি। এর বেশি ভাড়া আদায় করছি না বলে জানান তারা।

উর্মি নামে এক যাত্রী জানান, জরুরী কাজে সিলেটের মিরপুরের উদ্দেশ্যে বের হয়েছি। টিকেট কাউন্টারে এসে দেখি ভাড়া ৬৫০ টাকা চাচ্ছে। যেখানে আগে ভাড়া ছিল ৪৮০ টাকা। আমাদের মতো সাধারণ মানুষের জন্য বেশি ভাড়া আমাদের উপর বাড়তি চাপ। অন্যসব কাউন্টারগুলোতেও একই অবস্থা দেখছি। তাই বাধ্য হয়ে বেশি টাকা দিয়েই যেতে বাধ্য হচ্ছি।

সোহাগ পরিবহনের টিকেট কাউন্টারের ম্যানেজার মোঃ মনির হোসেন জানান, আমরা বি-বাড়িয়ার ভাড়া আগের নির্ধারিত ভাড়া অনুসারেই আদায় করছি। যদি পরিবহনের মালিক বেশি ভাড়া আদায় করতে বলে তাহলে আমরাও বেশি ভাড়া নিব। শুনলাম আজ বিকেলে নাকি তারা মিটিংয়ে বসবে। হয়তো আজ রাত থেকেই ভাড়া বৃদ্ধি পেতে পারে।

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ওসি নবীর হোসেন জানান, সকাল থেকেই যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। বাস ভাড়া বেশি আদায়ের বিষয়ে তিনি বলেন, এটা বাস মালিক কর্তৃপক্ষের বিষয়। এখানে আমাদের কিছু করার নেই।

উল্লেখ্য, শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাতে জ্বালানী তেলের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা দেয় বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। প্রতি লিটার ডিজেলে দাম বেড়েছে ৩৪, কেরোসিনে ৩৪, অকটেনে ৪৬, পেট্রলে ৪৪ টাকা। দাম বাড়ার পর প্রতি লিটার ডিজেল ১১৪ টাকা, কেরোসিন ১১৪ টাকা, অকটেন ১৩৫ টাকা ও পেট্রল ১৩০ টাকায় কিনতে হবে। এর আগে খুচরা মূল্য ছিল প্রতি লিটার ডিজেল ৮০ টাকা, কেরোসিন ৮০ টাকা, অকটেন ৮৯ টাকা ও পেট্রল ৮৬ টাকা।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected]l.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড