• বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ :

sonargao

প্রকল্পের টাকা ফেরত গেল সরকারি কোষাগারে

  এম এ মোতালিব ভুইয়া, দোয়ারাবাজার (সুনামগঞ্জ)

৩১ জুলাই ২০২২, ০৪:৩৯
প্রকল্পের টাকা ফেরত গেল সরকারি কোষাগারে
সরকারি কোষাগারে প্রকল্পের টাকা ফেরত পাঠানোর রশিদ (ছবি : অধিকার)

অবশেষে সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারের দুটি প্রকল্পের ৩ লাখ ৪২ হাজার ২৫ টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে সরকারি কোষাগারে। যার ফলে কাজ না করেই টাকা আত্মসাতের চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি সংশ্লিষ্টদের। দুটি প্রকল্পের টাকা পৃথকভাবে সোনালি ব্যাংকের মাধ্যমে জমা দিয়েছেন প্রকল্প সভাপতি।

উল্লেখ্য, সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলায় সম্প্রতি কাজ না করেই দুটি প্রকল্পের সরকারি বরাদ্দের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠে। লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের লিয়াকতগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজের উন্নয়ন প্রকল্পে ২০২১-২২ইং অর্থ বছরে প্রথম পর্যায়ে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ (টিআর) কর্মসূচির আওতায় ১ লাখ ৪০ হাজার টাকার উন্নয়ন কাজ করার জন্য ইউপি সদস্য মনোয়ার হোসেনকে সভাপতি করে পিআইসি গঠন করা হয়।

একই অর্থ বছরে একই ইউনিয়নের চামতলা দাখিল মাদ্রাসার মাঠ ভরাট প্রকল্পে গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার (কাবিখা) কর্মসূচির আওতায় ৬ মেট্রিকটন গম বরাদ্দ দেওয়া হয় ও সোহেল আহমেদ মিন্টুকে সভাপতি করে পিআইসি গঠন করা হয়। ওই প্রকল্পের মূল্য ধরা হয় ২ লাখ ২ হাজার ২৫ টাকা। কিন্তু দুটি প্রকল্পের কোনোটিতেই কোনো কাজ না করেই প্রকল্পের বিপরীতে বরাদ্দকৃত টাকা ও গম আত্মসাৎ করা হয়।

এ ব্যাপারে সম্প্রতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ করেন উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের চকিরঘাট গ্রামের আব্দুল করিমের ছেলে নজরুল ইসলাম সাগর।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আম্বিয়া আহমদ শনিবার টাকা ফেরতের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দুটি প্রকল্পের টাকা পৃথকভাবে সোনালি ব্যাংকের মাধ্যমে জমা দিয়েছেন প্রকল্প পরিচালকগন। টাকা ফেরতের জমা রশিদও আমাকে দেওয়া হয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড