• মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ক‍্যাম্পের বাইরে রোহিঙ্গাদের অবাধ বিচরণ,অপরাধ প্রবনতা বৃদ্ধি

  মিজানুর রহমান, টেকনাফ (কক্সবাজার) :

২৯ জুলাই ২০২২, ১৭:১৬
রোহিঙ্গা

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাইরে যাচ্ছে। কাজ-কর্ম ছাড়াও নানাবিধ অপরাধ কর্মকান্ডে জড়িয়ে যাচ্ছে তারা।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্রে জানা গেছে, রোহিঙ্গাদের বিশাল একটি অংশ জেলাসহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ছে। তাদের অনেকেই খুন, অপহরণ, মাদক, শ্রম বাজার দখলসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছে। রোহিঙ্গারা ক্যাম্প থেকে বের হওয়ার সুযোগে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে মাদক ও মানবপাচারকারি চক্র। ইতোমধ্যে এই চক্রের বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।

কক্সবাজার সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে দিন দিন অবৈধ রোহিঙ্গাদের অবাধ বিচরণ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। মাঝে মধ্যে ঢাক ডোল পিটেয়ে রোহিঙ্গা আটক বিষয়ে খবর শোনা গেলেও দু'একদিন পর বরফের মতো ঠান্ডা হয়ে পড়ে। এই রোহিঙ্গাদের অবাধে বিচরণের ফলে স্থানীয় শ্রমজীবি লোকজনদের উপর বড় ধরনের প্রভাব পড়ে বলে শ্রমজীবি লোকজন জানান। তাদের ভাষ্যমতে রোহিঙ্গা লোকজন কম বেতনে যেখানে সেখানে শ্রমের কাজ করে বসে। ফলে আমরা যারা স্থানীয় শ্রমজীবি লোকজন রয়েছি আমরা কাজ না পেয়ে সংসার চালাতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে। এমন কি বর্তমানে কক্সবাজার জেলায় প্রায় শ্রমবাজার অবৈধ রোহিঙ্গাদের দখলে।

জানা যায়, টেকনাফ স্থল বন্দর প্রায় ১ হাজার রোহিঙ্গা নিয়মিত কাজ করে। রোহিঙ্গারা শুধু শ্রমবাজার হাতে নিয়ে বসে থাকেনি, এর পাশাপাশি নানা রকমের অপরাধমুলক যত কর্মকান্ড রয়েছে প্রায় তাদের নিয়ন্ত্রণে। এর মধ্যে রয়েছে মাদক ব্যবসা, চোরাচালান, অস্ত্র ব্যবসা, মানব ও অস্ত্র পাচার, শিশু পাচার, ঘুম, খুন সহ বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ড।

সুত্র জানায়, ইয়াবাসহ বিভিন্ন বড়বড় মাদকের ব্যবসা ক্যাম্প এই ক্যাম্প অঞ্চলে তাদেরই নিয়ন্ত্রণে। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে মাদকের চালান নিয়ে আটক হচ্ছে রোহিঙ্গা। স্থানীয় মাদক কারবারি মাদক নিয়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আটক হলে, সে মহামান্য আদালত থেকে জামিন হতে অনেক সময় প্রয়োজন হয়। অথচ রোহিঙ্গা শরনার্থী আটক হলে দ্রুত সময়ে বের হয়ে যায়। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, টেকনাফ উপজেলার প্রতিটি ভাড়া বাসা, দোকান,মাছের ব্যবসা ইত্যাদি সর্বস্তরে অবৈধ রোহিঙ্গাদের বিচরণ। অতি দ্রুততম সময়ে এই রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া না হলে অদুর ভবিষৎ স্থানীয় লোকজনদের বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে বলে সচেতন মহল মনে করেন।

এ বিষয়ে টেকনাফ মডেল থানার ওসি মোঃ হাফিজুর রহমান জানান, আমরা আজও কয়েকজন রোহিঙ্গাকে আটক করেছি এবং কাল থেকে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করে রোহিঙ্গা বিরোধী অভিযান পরিচালনা হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড