• মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সেই নিহত শিশুর মরদেহের দাফন সম্পন্ন

  মাজেদুল ইসলাম হৃদয়, ঠাকুরগাঁও:

২৮ জুলাই ২০২২, ১৯:৩৯
রাণীশংকৈল

‌‘নিজের কোনো বসতভিটা নাই। সরকারের দেওয়া ঘরে থাকি। আগে ঝালুমড়ির দোকান করতাম। এখন সেটিও অসুস্থতার কারণে করতে পারছি না। অন্যের বাড়িতে কাজ করে কোনমতে সংসার চালাই। গতকাল ভোট কেন্দ্রে আমিও ছিলাম ফলাফল জানার জন্য। হট্টগোল হওয়ার পর এসে দেখি আমার কলিজার টুকরার মাথার খুলি নেই। তখন আর ঠিক থাকতে পারিনি। আমি জ্ঞান হারিয়ে ফেলি। আমার বউ অসুস্থ হয়ে যায়। এখনও আমি এ শোক নিতে পারছি না। বাবা হয়ে কিভাবে সন্তানের লাশ বহন করব আমি। আমার মেয়ের অনেক কষ্ট হয়েছে। এ শোক কিভাবে সহ্য করব আমি। আমার নিষ্পাপ মেয়ের কি অপরাধ ছিল।’

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) এভাবে কান্নারত অবস্থায় কথাগুলো বলছিলেন ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় নিহত শিশুর বাবা বাদশাহ মিয়া।

এর আগে বুধবার (২৭ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ইউপি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ ও গণনা শেষে দুপক্ষের উত্তেজনার জেরে সৃষ্ট সহিংসতার ঘটনায় পুলিশের গুলিতে আট মাস বয়সী সুরাইয়া আক্তার নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়। নিহত শিশুটি বাদশাহ মিয়ার তৃতীয় সন্তান। উপজেলার বাচোর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের ভাংবাড়ি ভি.এফ নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। ময়নাতদন্তের পর আইনি প্রক্রিয়া শেষে মৃত্যুর ১৮ ঘণ্টা ওই শিশুর মরদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিহত শিশুর বাবা কাঁদতে কাঁদতে বলেন, আমার বউ ছিল আমার মেয়েকে নিয়ে। যখন ঝামেলা হয়েছিল তখন পাশের বাড়িতে মেয়েকে রেখে আমার বউ বাড়িতে যায়। কিছুক্ষণ পর দেখা যায় আমার মেয়ের লাশ। এ লাশ আমি বহন করব কেমনে?

রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম জাহিদ ইকবাল বলেন, ঘটনাটির জন্য তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আর নিহত শিশুটির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুরে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের পর আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড