• বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ :

sonargao

সান্তাহারে বসত বাড়িতে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় গৃহবধুর মৃত্যু

  নেহাল আহম্মেদ প্রান্ত, আদমদীঘি,বগুড়া :

২৮ জুলাই ২০২২, ১৪:১৪
আগুন

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের বশিপুর গ্রামে আগুনে পুড়ে শামীমা আক্তার (৪৫) নামে এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। নিহতের স্বামী ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ রয়েছেন বলে পুলিশ জানায়।

বুধবার (২৭ জুলাই) রাতে উপজেলার বশিপুর প্রামানিক পাড়ার সবজি ব্যবসায়ী আজাদুল ইসলামের বাড়িতে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের বশিপুর প্রামানিক পাড়ার সবজি ব্যবসায়ী আজাদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী প্রতিদিনের মতো গত বুধবার রাতে ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। গভীর রাতে বসত বাড়িতে আগুন জ্বলতে দেখে প্রতিবেশীরা ফায়ার সার্ভিসে (নওগাঁ) খবর দিলে তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ সময়ের মধ্যে বসত বাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ি ও আদমদীঘি থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে গৃহবধু শামীমা আক্তারের পোড়া মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া মর্গে প্রেরণ করে।

নিহতের স্বামী পুড়ে মারা গেছেন, না কি তিনি নিজেই বসত বাড়িতে আগুন দিয়ে আত্মগোপন করেছেন সেই বিষয়ে এখনও নিশ্চিত করে কিছু জানা যায়নি।

এ ব্যাপারে আদমদীঘি থানার ওসি রেজাউল করিম রেজা বলেন, আদমদীঘি সার্কেলের নাজরান রউফসহ পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আগুনে পোড়া মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তবে নিহতের স্বামী আজাদুলের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। অগ্নিকান্ডের সুত্রপাতের কারণ জানা যায়নি, তবে ঘটনা তদন্তের জন্য বগুড়া ও রাজশাহী সিআইডি একটি টিম তদন্ত করছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড