• রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ধর্ষণচেষ্টা মামলায় কথিত সাংবাদিক গ্রেফতার

  মো. মনোয়ার হোসেন রুবেল, ধামরাই (ঢাকা)

২৭ জুলাই ২০২২, ২১:৫২
ধর্ষণচেষ্টা মামলায় কথিত সাংবাদিক গ্রেফতার
ধর্ষণচেষ্টা মামলায় গ্রেফতার হওয়া কথিত সাংবাদিক ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আলাল হোসেন সজীব (ফাইল ছবি)

ঢাকার ধামরাইয়ে প্রয়াত সাবেক পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রীর শয়নকক্ষ থেকে আপত্তিকর অবস্থায় তরুণীসহ এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে আটক করে গণধোলাই দিয়েছে এলাকাবাসী। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। যদিও বিভিন্ন সময় তিনি নিজেকে একজন সাংবাদিক পরিচয়ও দিতেন।

আটককৃত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আলাল হোসেন সজীব উপজেলা সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক বলে পরিচয় পাওয়া যায়। সে উপজেলার কুশুরা ইউনিয়নের টোপের বাড়ি এলাকার আওলাদ হোসেনের ছেলে। আলাল হোসেন সজীব বিভিন্ন সময়ে জিম্মি করে একাধিক বিয়ে করেছে বলে জানা যায়।

মঙ্গলবার রাতে ধামরাই পৌরশহরের মডেল টাউনের প্রয়াত উপ-পুলিশ পরিদর্শক দবির উদ্দিনের স্ত্রীর শোবার ঘর থেকে ওই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে স্থানীয়রা প্রথমে তাকে আটক করে; এরপর তাকে পুলিশে সুপর্দ করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে জানা যায়, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আলাল হোসেন সজীব মাঝেমধ্যেই বিভিন্ন বয়সী নারীদের নিয়ে পৌর শহরের মডেল টাউনের এ বাড়িতে এসে আড্ডা জমান এবং মদ খেয়ে আনন্দ ফূর্তি করে থাকে। তার কাছ থেকে একটি ভিজিটিং কার্ড পাওয়া যায়। সেখানে সে নিজেকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ধামরাই উপজেলার সিনিয়র সহ-সভাপতি, ধামরাই, কুশুরা উল্লেখ রয়েছে।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী নারীর পিতা নুর হোসেন বাদী হয়ে আলালের বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টায় নারী ও শিশু দমন আইনে মামলা করেন।

জানা যায়, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আলাল ভুক্তভোগী নারীকে বাসা ভাড়া নিয়ে দেওয়ার কথা বলে পৌর শহরের মডেল টাওনের সেই বাড়িতে এনে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। পরে ভুক্তভোগী নারীর ডাকচিৎকারে এলাকাবাসী এসে নারীকে উদ্ধার করে যুবককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন। আলাল প্রায়ই সেই বাড়িতে নারী নিয়ে এসে মাদক সেবন করেন বলে জানা যায় এবং মদের বোতল হাতে তার একটি ভিডিয়োও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও পাওয়া যায়।

আলাল হোসেন সজীব নিজেকে একজন গণমাধ্যম কর্মী বলে নিজেকে পরিচয় দেন। তার ফেসবুক আইডিতে দেখা যায়, সে দৈনিক বাংলাদেশের আলো, দৈনিক বাংলা বার্তা ও দৈনিক পর্যবেক্ষন পত্রিকায় কাজ করেন। তবে মাঠে ঘাটে তাকে কখনো সংবাদ সংগ্রহ করতে দেখা যায়নি। সে কোথাও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা আবার কোথাও সাংবাদিক পরিচয় দিতেন।

এ ঘটনায় আলাল হোসেন সজীবের একটি মোটরসাইকেল জব্দ করে পুলিশ। তবে বাড়ির মালিক প্রয়াত পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রী এ বিষয়ে কোনো কথা বলেননি।

ধামরাই উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইউসুফ আলী বলেন, আলাল হোসেন সজীব বর্তমানে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কোনো পদে নেই। তবে পূর্বের কমিটিতে সে পদে ছিল।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উপ-পুলিশ পরিদর্শক মো. শিমুল মোল্লা বলেন, এলাকাবাসী ওই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। তার নামে একটি ধর্ষণ মামলা হয়েছে। আজ সকালে আসামি আলাল হোসেন সজীবকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। সাথে থাকা তার মোটরসাইকেলটিও থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড