• মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নৌকা ভ্রমণে গিয়ে নদীতে পরে লাশ হলেন প্রবাসী

  মো. মনোয়ার হোসেন রুবেল, ধামরাই (ঢাকা)

২৪ জুলাই ২০২২, ০২:৪৫
নৌকা ভ্রমণে গিয়ে নদীতে পরে লাশ হলেন প্রবাসী
সদ্য প্রাণ হারানো যুবকের মরদেও (ফাইল ছবি)

ঢাকার ধামরাইয়ে নৌকা ভ্রমণে গিয়ে নদীতে নিখোঁজ হওয়া কুয়েত প্রবাসী মো. রাব্বি হোসেনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ১৮ ঘণ্টা উদ্ধার অভিযান শেষে আজ শনিবার বেলা ১২ টায় উপজেলার ভাড়ারিয়ার কাকরান এলাকায় বংশী নদীর ব্রিজের পাশ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

নিহত মো. রাব্বি হোসেন ধামরাইয়ের কুমরাইল এলাকার মো. হুমায়ুন মিয়ার ছেলে। পারিবারিক সূত্র জানায়, সপ্তাহখানেক আগে তিনি বিয়ে করেন।

ধামরাইয় ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা জানায়, কিছুদিন আগে কুয়েত থেকে দেশে আসপন রাব্বি। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে বন্ধুদের নিয়ে উপজেলার ভাড়ারিয়া ইউনিয়নের কাকরান এলাকার বংশী নদীতে নৌকা ভ্রমণে যান। আনন্দ-উল্লাসের এক পর্যায়ে নৌকা থেকে নদীতে পরে যান রাব্বি। সাঁতার না জানায় তিনি পানির নিচে তলিয়ে যান। খবর পেয়ে ধামরাই ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কাজ শুরু করে। রাত আটটা পর্যন্ত তারা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে বিরতি দেন। পরে আজ শনিবার শনিবার সকাল সাতটায় ঢাকা থেকে আসা ৪ সদস্যের ডুবুরি দলকে সাথে নিয়ে পুনরায় উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। এরপর দীর্ঘ পাঁচঘন্টা চেষ্টার পর ঘটনাস্থল থেকে এক কিলোমিটার দূরে ডুবন্ত অবস্থায় রাব্বীর লাশ উদ্ধার করেন তারা।

ধামরাই ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা মো. সোহেল রানা বলেন, রাব্বি অসতর্কতাবশত নৌকা থেকে পরে যায়। সে সাঁতার জানত না তাই সাথে সাথেই পানির নিচে তলিয়ে যায়। আজ ১২ টার দিকে ভাড়ারিয়ার কাকরান এলাকায় বংশী নদীর ব্রিজের পাশ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় তাঁর মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড