• শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সন্ত্রাসী বাহিনীর ৩ সদস্য অস্ত্র-মাদকসহ গ্রেফতার

  মো. নুর আলম শেখ মিলন, কুষ্টিয়া সদর

০৫ জুলাই ২০২২, ২৩:৫২
সন্ত্রাসী জেড এম সম্রাট ও তার সহযোগী অস্ত্র-মাদকসহ গ্রেফতার
গ্রেফতারকৃত আসামিরা (ছবি : অধিকার)

কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের অভিযানে কুখ্যাত সন্ত্রাসী ও মাদক কারবারি একাধিক মামলার আসামি জেড এম সম্রাট (৩৩) ও তার দুই সহযোগী- দ্বীন ইসলাম রাসেল (৩৩) ও ওসমান হাসানকে (৩১) গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত জেড এম সম্রাট ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলার মির্জাপুর এলাকার আমিরুল ইসলামের ছেলে ও দ্বীন ইসলাম রাসেল কুষ্টিয়া পশ্চিম মজমপুর এলাকার মৃত গোলাম রসুলের ছেলে এবং ওসমান হাসান কুষ্টিয়া জুগিয়া এলাকার আবুল কালামের ছেলে।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) দুপুর ১২টায় র‍্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন র‍্যাবের কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার স্কোয়ান্ড্রন লিডার ইলিয়াস খান।

র‍্যাব জানায়, কুষ্টিয়া র‍্যাবের কোম্পানি কোমান্ডার ক্সোয়ান্ড্রন লিডার ইলিয়াস খানের নেতৃত্বে র‍্যাবের একটি অভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত (৪ জুলাই) রাতে কুষ্টিয়া শহরের আগা ইউসুফ মার্কেটের ৩ তলায় জেড এম সম্রাটের অফিস কার্যালয়ে অভিযান পরিচালনা করে ১টি ওয়ান শুটার গান, ৮ রাউন্ড গুলি, ৪ গ্রাম হেরোইন, ৪৯৫ পিস ইয়াবা, ১ বোতল বিদেশি মদ, ৮ বোতল ফেনসিডিল, ৪২০ গ্রাম গাঁজা, ৩টি গাঁজার গাছ, ৪ টি ওয়াকিটকি সেট, ১টি চাইনিজ কুড়াল, ৩টি কমান্ডো চাকু, ৪টি রামদা, ও বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র সহ জেড এম সম্রাট ও তার দুই সহযোগীকে আটক করা হয়।

র‍্যাব আরও জানায়, জেড এম সম্রাট দীর্ঘদিন যাবত সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিল। তার এই সকল কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্য সে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক পরিচয় ব্যবহার করতো। নিজ জেলা ঝিনাইদহ হলেও বাবার কর্মসূত্রে সে ছোটোবেলা থেকেই কুষ্টিয়া শহরে বসবাস করতে শুরু করে। বর্তমানে সে কোনো দলের কমিটিতে না থাকলেও কুষ্টিয়ার বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের নাম ভাঙ্গিয়ে বিভিন্ন ধরণের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচিছল।

এছাড়াও সম্রাট নিজেকে র‍্যাবের সোর্স বলে জাহির করত এবং এই পরিচয়ে সে লোকজনের নিকট হতে চাঁদা আদায় করত বলে অভিযোগ আছে। কুষ্টিয়া শহরের মজমপুরে অফিস খুলে সেখানে বিভিন্ন ধরণের অপকর্ম করত এবং তার বিরোধী পক্ষের লোকজনকে ধরে নিয়ে এসে নির্যাতন চালাতো।

এসকল অপকর্মের ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে দ্বীন ইসলাম রাসেল জড়িত। ভুক্তভোগী লোকজন প্রায়ই তাদের বিরুদ্ধে র‍্যাব ও পুলিশের নিকট বিভিন্ন অভিযোগ নিয়ে আসত।

এছাড়াও গ্রেফতারকৃত জেড এম সম্রাটের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া জেলার সদর থানায় অস্ত্র আইনে ৩টি ও ১টি মারমারির মামলা রয়েছে। দ্বীন ইসলাম রাসেল এর বিরুদ্ধে ৩টি মারামারির মামলা, ২টি চাঁদাবাজির মামলা, ১টি অস্ত্র মামলা ও ১টি মাদক মামলা রয়েছে এবং ওসমান হাসান এর বিরুদ্ধে ১টি মারামারির মামলা রয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

এবিষয়ে র‍্যাব -১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার স্কোয়াড্রন লীডার ইলিয়াস খান বলেন, বাংলাদেশ আমার অহংকার" এই শ্লোগান নিয়ে র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব) প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে বিভিন্ন ধরণের অপরাধীদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে জোরাল ভূমিকা পালন করে আসছে। র‍্যাবের সৃষ্টিকাল থেকে বিপুল পরিমাণ অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ উদ্ধার, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, খুনি, ছিনতাইকারী, অপহরণ ও প্রতারকদের গ্রেফতার করে সাধারন জনগণের মনে আস্থা অর্জন করেছে।

এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় এনে র‍্যাব জনগণের সুনাম অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। এ ধরণের অপরাধীদের গ্রেফতার অভিযান সচল রেখে সন্ত্রাস মুক্ত সোনার বাংলা গঠনে র‍্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া বদ্ধপরিকর।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.[email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড