• শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ৫ ভাদ্র ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

দৌলতপুরে নিখোঁজের একমাসেও মেলেনি মা-মেয়ের সন্ধান

  আতিয়ার রহমান, দৌলতপুর (কুষ্টিয়া):

০৪ জুলাই ২০২২, ১৯:১৫
মা ও মেয়ে
নিখোঁজ হওয়া মা ও মেয়ে। ছবি: অধিকার

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে নিখোঁজ মা জুলি খাতুন (২৮) ও তার সন্তান জান্নাতি খাতুন (৯) নিখোঁজ হওয়ার এক মাস পার হলেও তাদের সন্ধান মেলেনি। এতে চরম উদ্বেগ উৎকন্ঠায় দিন কাটাচ্ছে তাদের পরিবারের লোকজন। জুলি খাতুন তার মেয়ে জান্নাতি খাতুনকে সঙ্গে নিয়ে গত ১ জুন, ২০২২ দুপুরে শ্বশুর বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি দৌলতপুর উপজেলা পূর্বপাড়া গ্রামের আব্দুল জলিলের বাড়ি আসার পথে তারা নিখোঁজ হয়।

এ ঘটনায় থানায় জিডি করা হলেও অদ্যাবধি নিখোঁজ মা ও মেয়ের সন্ধান বা উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। ফলে উভয় পরিবার চরম উদ্বেগ উৎকন্ঠা ও অসহায় অবস্থার মধ্যে রয়েছে।

নিখোঁজ জুলি খাতুনের বাবা আব্দুল জলিল ও মা রেনু খাতুন গতকাল সোমবার সকালে জানান, প্রায় ১০ বছর পূর্বে তার মেয়ে জুলি খাতুনের বিয়ে হয় পার্শ্ববতী মেহেরেপুর জেলার গাংনী উপজেলার তেঁতুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের করমদী গ্রামের আয়ুব হোসেনের ছেলে আজাদ আলীর সাথে। বিয়ের পর আজাদ আলী ও তার স্ত্রী জুলি খাতুনের সংসারে জন্ম নেয় মেয়ে জান্নাতি খাতুন। বর্তমানে তার বয়স ৯বছর।

বিয়ের পর জান্নাতি খাতুনের স্বামী আজাদ আলী বিদেশ চলে যান। কন্যা সন্তানকে নিয়ে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ীতে স্বাভাবিকভাবে বসবাস করছিলেন জান্নাতি খাতুন। গত ১লা জুন দুপুর ১২টার দিকে শ্বশুরবাড়ী করমদী গ্রাম থেকে দৌলতপুরে বাবার বাড়ি আসার পথে জুলি খাতুন ও তার মেয়ে জান্নাতি খাতুন নিখোঁজ হয়। মা ও মেয়ে নিখোঁজ হওয়ার সংবাদ পেয়ে উভয় পরিবার সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে ও আত্মীয় স্বজনের বাড়ীতে খোঁজ-খবর নেয়। কিন্তু তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরে ৪ জুন গাংনী থানায় একটি জিডি করা হয়।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড