• শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ৫ ভাদ্র ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বিষমুক্ত সবজি উৎপাদনে ফুকুরহাটিকে মডেল ইউনিয়ন ঘোষণা

  মাহাবুবুর রহমান রানা, সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ)

২৪ জুন ২০২২, ২১:৩৫
বিষমুক্ত সবজি উৎপাদনে ফুকুরহাটিকে মডেল ইউনিয়ন ঘোষণা
ফুকুরহাটির কৃষক (ছবি : অধিকার)

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ার বিষমুক্ত সবজির ইউনিয়ন হলো ফুকুরহাটি ইউনিয়ন। এ অঞ্চলের প্রায় ৫ শতাধিক কৃষক সবজি আবাদ করায় ওই ইউনিয়নকে মডেল ইউনিয়ন ঘোষণা করেছে উপজেলা কৃষি সম্প্রাসারণ অধিদপ্তর। ২০২১-২২ অর্থ বছরে বিভিন্ন প্রকল্পের আওতায় ৩১০টি সবজির প্রদর্শনী করা হয়েছে ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে।

ইতোমধ্যে ইউনিয়নটি নিরাপদ সবজি ইউনিয়ন হিসেবে পরিচিতি লাভ করায় ওই ইউনিয়নের শতাধিক নারী কৃষাণীদের বাড়ির আঙ্গিনায় সবজির উৎপাদন করার জন্য আরও ১০টি প্রকল্প দেওয়া হয়েছে। কৃষকদের পাশাপাশি বিষমুক্ত ও জৈব সার দিয়ে কিভাবে সবজি উৎপাদন করে বাড়তি আয় করা যায় এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে কৃষক-কৃষাণীদের

উৎপাদিত সবজির মধ্যে হচ্ছে- লাউ, ফুলকপি, বাধাকপি, লালশাক, ঢেঁড়স, করলা, বেগুন, টমেটে, ধুন্দলসহ বিভিন্ন সবজি ১২ মাস উৎপাদন হয়ে থাকে এই ইউনিয়নে।

সাটুরিয়া উপজেলা কৃষি সম্প্রাসারণ অফিস সূত্রে জানা গেছে, ২০২১-২২ অর্থ বছরে কয়েকটি প্রকল্পের আওতায় ফুকুরহাটি ইউনিয়নে ৩১০ জন কৃষককে বিভিন্ন জাতের সবজি আবাদ করার জন্য প্রদর্শনী দেওয়া হয়।

এসব কৃষকরা তাদের সবজি ফলানোর জন্য কোনো সার ব্যবহার না করে শুধু জৈব সার ব্যবহার ও বিষমুক্ত সবজি আবাদ করেছে। এছাড়া বাড়ির ওঠানে পতিত জায়গায় সবজি বাগান করার জন্য রাজস্ব প্রকল্প থেকে আরও ১০টি প্রদর্শনী দেওয়া হয় কৃষাণীদের।

এসব কৃষকদের কিভাবে বিষমুক্ত ও জৈব সার দিয়ে সবজি উদপাদন করা যায় এ নিয়ে তাদের দেওয়া হয়েছে প্রশিক্ষণ। এদিকে ৩১০ প্রদর্শনী কৃষককে মাঠে সহযোগিতা করছেন মাঠ পর্যায়ে কৃষি কর্মকর্তারা।

এদিকে কৃষকদের উৎপাদিত সবজি বিক্রি করার জন্য কাছেই দুটি হাট বসানো হয়েছে। গোড়লার পল্লী হাট ও গোলড়া বাসস্ট্যান্ড কাঁচাবাজার। কৃষকরা তাদের উৎপাদিত সবজি ভোরে এসব হাটে নিয়ে যান। আর সাটুরিয়ার সবজি ঢাকার বিভিন্ন পাইকারী বাজারে বিক্রি হয়ে থাকে।

কৃষকরা জানায়, বিষমুক্ত হওয়ায় আমাদের সবজি ভালো দামে বিক্রি করতে পারি।

সোমবার সরেজমিনে গিয়ে কথা হয় ফুকুরহাটি সাইপাড়ার কৃষক ফইজুদ্দিনসহ কয়েকজন কৃষকের সাথে; তিনি জানান, ৩০ শতাংশ জমিতে ঢেঁড়সের আবাদ করেছি। এতে আমার ব্যয় হয়েছে ৫ হাজার টাকা। এবার তিনি প্রায় ২৫ হাজার টাকার ঢেঁড়স বিক্রি করেছেন বলে জানান। এতে তার ২০ হাজার টাকা লাভ হয়েছে।

ফুকুরহাটি কান্দাপাড়ার মো. হাবিবুর রহমান জানান, এ অর্থ বছরে তিনি ৪০ শতাংশ জমিতে ফুলকপি আবাদ করেন। এতে তার খরচ হয়েছে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা। তিনি বিক্রি করেছেন প্রায় ১ লক্ষ টাকার ফুলকপি। এতে তার ৮০ হাজার থেকে ৮৫ হাজার টাকা লাভ হয়েছে।

সাইপাড়া গ্রামের কৃষক আওলাদ হোসেন জানান, এ মৌসুমে তিনি ২০ শতাংশ জমিতে লাল শাকের আবাদ করেন। এতে তার ২ থেকে ৩ হাজার টাকা খরচ হয়। তিনি ১৫ হাজার টাকার লাল শাক বিক্রি করেছেন।

সাটুরিয়ার ফুকুরহাটি ইউনিয়নে সবজি আবাদ করে কয়েকজন কৃষক লাভবান হওয়ায় এই ইউনিয়নের সব কৃষকই সবজি চাষে ঝুকে পরে। পাঁচ শতাধিক কৃষক বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন করায় ওই ইউনিয়নকে সবজি আবাদে মডেল ইউনিয়ন ঘোষণা করেছে কৃষি অধিদপ্তর।

সাটুরিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. খলিলুর রহমান বলেন, ফুকুরহাটি ইউনিয়নের কৃষকদের সবজি উৎপাদনে উৎসাহ দেখে প্রতিদিনই কৃষকদের ক্ষেতে গিয়ে উৎসাহ দিয়ে থাকি। এছাড়া মাঠ পর্যায়ে কৃষি কর্মকর্তারাও রাসায়নিক সার ব্যবহার না করে জৈব সার ব্যবহার করে কিভাবে বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন করা যায় সে বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া হয় কৃষকদের।

তিনি আরও বলেন, সবজি উৎপাদনসহ সকল বিষয়ে কৃষকদের প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকেন। ফলে এই ইউনিয়নের কৃষকরা সবজি বিক্রি করে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করে থাকেন।

ওডি/কেএইচআর

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড