• শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মহাসড়কের বেহাল দশা, প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা

  সুমন খান, লালমনিরহাট

১২ জুন ২০২২, ১৮:৪০
মহাসড়কের বেহাল দশা, প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা
খানাখন্দে ভরা ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের হাতীবান্ধা উপজেলার অংশ (ছবি: অধিকার)

খানাখন্দে ভরা ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের হাতীবান্ধা উপজেলার অংশ। সংস্কার নেই, প্রতিনিয়ত ঘটছে সড়ক দুর্ঘটনা।

হাতীবান্ধা বন্দরের সড়কগুলো ঘুরে দেখা গেছে, বড়খাতা বাসষ্টান্ড থেকে দোয়ানীর মোড়, হাতীবান্ধা অডিটরিয়ামের সামনে থেকে আমতলা, করেলগেট পার হয়ে ডিএস ফিলিং ষ্টেশনের সামনের সড়ক, বড়খাতা বাসষ্টান্ড থেকে শুরু করে দোয়ানীর মোড়, পারুলিয়া বাজারের দক্ষিণ দিকে স্কুলের সামনে ইট দিয়ে হেয়ারিং করা সড়কগুলোর বেহাল দশা। সড়কগুলো ছোট-বড় খানাখন্দে ভরা। একটু বৃষ্টি হলে পানি জমে থাকে প্রতিনিয়ত ঘটে বড় ধরণের দুর্ঘটনা।

হাতীবান্ধা মোড় থেকে পশ্চিমে আলিমুদ্দিন কলেজের সড়কটির অবস্থা খুবই শোচনীয়। কয়েক দিনের ভারি বর্ষণে সড়কটি ভেঙে গেছে। জমে আছে পানি। এ অবস্থায় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে সব ধরণের যানবাহন।

বুড়িমারী-লালমনিরহাট মহাসড়কে চলাচলকারী পাথর বোঝাই ট্রাকচালক আইয়ুব আলী বলেন, বন্দরের সড়কটি সোনালী ব্যাংকের সামনে খুবই শোচনীয় অবস্থায় আছে। ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছে।

বাসচালক শাহিন ইসলাম বলেন, দিনে দুইবার আসা-যাওয়া করতে হয় এখান দিয়ে। খানাখন্দে ভরা স্থানগুলো পার হতে ভয় লাগে।

অটোরিকশা চালক আজিবর রহমান বলেন, যাত্রীদের নিয়ে অনেক আতঙ্কে চলাচল করতে হয়। সোনালী ব্যাংকের সামনের রাস্তায় একটু বৃষ্টি হলে হাটু পানি জমে থাকে। ফলে খুবই সমস্যা হয়।

হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুন বলেন, হাতীবান্ধা রাস্তাগুলো অবস্থা যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। লালমনিরহাট সড়ক ও জনপদের অধিদপ্তরের সাথে আলোচনা করে সড়কগুলো দ্রুত সংস্কারের ব্যবস্থা করা হবে।

লালমনিরহাট সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী খালিদ সাইফুল্যাহ সরদার বলেন, উন্নতমানের সড়ক নির্মাণের কাজ হাত নিয়েছে সরকার। টেন্ডার প্রক্রিয়াও শেষ হয়েছে। রিলায়েবল বিল্ডার্স লিমিটেড কাজটি পেয়েছে। কিন্তু কেন যেন তারা এখনও কাজটি শুরু করতে পারেনি। দ্রুত কাজগুলো শুরু করার জন্য অফিসিয়ালি চিঠি দেওয়া হবে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই কাজটি শেষ করার বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া আছে।

আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চায় একটি অসহায় পরিবার

রেলায়েবল বিল্ডার্স লিমিটেডের প্রজেক্ট পরিচালক কালাম মজুমদার বলেন, নির্মাণ সামগ্রীর দাম বৃদ্ধি হওয়ার কারণে আমরা একটু অপেক্ষা করছিলাম। আগামী মাসের মাঝামাঝি সময়ে কাজটি শুরু করবো।

ওডি/এমকেএইচ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড